প্রবীর মিত্র-নূতনের পাশে প্রধানমন্ত্রী

দরিদ্রদের চিকিৎসায় ১০ কোটি টাকা অনুদান

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৪ জন ব্যক্তি ও একটি সংগঠনকে ১২ কোটি ১৫ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র অভিনেতা প্রবীর মিত্র এবং অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী নূতন। গতকাল বৃহস্পতিবার এই চার গুণী শিল্পীকে সকাল ১০টার দিকে গণভবনে ডেকে ৯০ লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চার শিল্পী উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে এই অনুদান গ্রহণ করেছেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব চিকিৎসা বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের অতিদরিদ্র রোগী কল্যাণ তহবিলেও ১০ কোটি টাকা অনুদান দেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুদানপ্রাপ্ত অন্যরা হলেনÑ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক এলাকার জাকারিয়া মাসুদ, ঢাকার নিউ ইস্কাটনের বেগম ফাতেমা জলি, আবাহনী লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার সুবাস সোম, ৭১ টেলিভিশনের সাংবাদিক মনজুর মোর্শেদ খান, ঢাকা দক্ষিণ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক নীলুফা বেগম, সিরাজগঞ্জ সদরের মোছাম্মাৎ শিখা বেগম, রাজশাহীর পবা উপজেলার সৈয়দা ফাতেমা সিদ্দিকা রুবি, ঢাকার মতিঝিলের মো. সফিউল্লাহ, সেনাবাহিনীর এমপি ইউনিটের মরহুম মো. আবদুর রাজ্জাকের স্ত্রী মোছাম্মাৎ পলি বেগম, ঢাকার আশকোনার বেগম শাহনাজ পারভীন ও ঢাকার মোহাম্মদপুরের মো. মজিবুর রহমান।

প্রবীণ অভিনেতা প্রবীর মিত্র ও অসুস্থ অভিনেত্রী রেহানা জলি পেয়েছেন ২৫ লাখ করে; অন্যদিকে অভিনেত্রী নূতন ও শিল্পী কুদ্দুস বয়াতি ২০ লাখ টাকা করে পেয়েছেন। সকলকে উক্ত মূল্যের সমমান সঞ্চয়পত্র তুলে দেওয়া হয়েছে। শিল্পী ঐক্যজোটের সভাপতি ও অভিনেতা ডি এ তায়েবের পরামর্শে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ও নাট্য নির্মাতা জিএম সৈকতের তত্ত্বাবধানে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন কুদ্দুস বয়াতি বাদে বাকি তিন শিল্পী। অনুদান গ্রহণের সময় শিল্পী ঐক্যজোটের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন নির্মাতা জিএম সৈকত।

এ বিষয়ে ডিএ তায়েব বলেন, ‘আমাদের শিল্পী ঐক্যজোট সব সময় শিল্পীদের পাশে থাকেন। শোবিজের এসব গুণী শিল্পীর সহায়তার জন্য গত সপ্তাহে চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অনুদান চেয়ে আবেদন জমা দেওয়া হয়। এক সপ্তাহের মধ্যেই এই আবেদনে সাড়া পেলেন তারা। সঞ্চয়পত্র হিসেবে প্রতি মাসে একটি করে কিস্তিতে টাকা পাবেন এই শিল্পীরা।’

"