ব্লগার শাহজাহান বাচ্চু হত্যার পরিকল্পনাকারী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার শিবগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মুন্সীগঞ্জের লেখক ও ব্লগার শাহজাহান বাচ্চু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী পুরাতন জেএমবির বাংলাদেশ শাখার আমির খোরশেদ ওরফে মাস্টার ওরফে সামিল নিহত হয়েছে। এ সময় সেখান থেকে পুলিশ বিদেশি পিস্তল, একটি দেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, একটি বার্মিজ চাকু ও একটি চাপাতি উদ্ধার করেছে। বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ জানতে পারে যে, সোমবার রাত আনুমানিক দেড়টায় শিবগঞ্জের পিরবের তাতি পুকুর এলাকায় কতিপয় জেএমবির সদস্য বড় ধরনের অপরাধ সংঘটিত করার জন্য বৈঠকে মিলিত হচ্ছে। এ খবরে টহল পুলিশ সেখানে গেলে একদল দুষ্কৃতকারী পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এতে অন্যান্য দুষ্কৃতকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একজন ৩৬-৩৮ বছর বয়স্ক যুবককে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে দ্রুত শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ (শজিমেক)

হাসপাতালে প্রেরণ করলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সনাতন চক্রবর্তী আরো জানান, আহত অবস্থায় জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজের নাম খোরশেদ বলে জানায়, তার পিতার নাম মো. আবদুল খালেক বাড়ি ঘোনার পাড়া, থানা, সরিষাবাড়ী, জেলা, জামালপুর।

খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়। সে পুরাতন জেএমবির বাংলাদেশ শাখার আমির। মাস্টার সামিল নামে সে সাংগঠনিকভাবে পরিচিত ছিল। এ ঘটনায় পুলিশের এসআই আহসান এবং কনসটেবল সাব্বির আহত হয়েছেন। তাদের পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত খোরশেদ মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে মুক্তমনা লেখক ও ব্লগার শাহজাহান বাচ্চু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী। এ ছাড়া ২০১৪ সালে ২৩ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশালের প্রিজন ভ্যানে থাকা পুরাতন জেএমবির তিন আসামি সালাউদ্দিন সালেহীন, মিজান ওরফে বোমা মিজান ও রাকিব হাসান ওরফে হাফেজ মাহমুদ ছিনতাই ঘটনার অন্যতম পরিকল্পনাকারী। এ ঘটনায় বগুড়া শিবগঞ্জ থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

 

"