বিএনপি নেতা তরিকুলের ইন্তেকাল

প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি নেতা, সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলাম মারা গেছেন। ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গতকাল রোববার বিকেলে মৃত্যু হয়েছে তার। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে ও দলের কেন্দ্রীয় সদস্য অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। তরিকুলের বয়স হয়েছিলে ৭২ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই ছেলে রেখে গেছেন। অসুস্থতার কারণে কয়েক বছর ধরে দলীয় কার্যক্রমে অনেকটাই অনিয়মিত হয়ে পড়েছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল। স্থায়ী কমিটির বৈঠকে শেষবার তিনি অংশ নেন গত ফেব্রুয়ারিতে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে।

যাশোর থেকে চারবার নির্বাচনে জিতে সংসদে যাওয়া তরিকুল চারদলীয় জোট সরকারের তথ্যমন্ত্রী এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে খালেদা জিয়ার সরকারে তিনি প্রথমে সমাজকল্যাণ এবং পরে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী ছিলেন।

বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে আসার আগে তিনি সহসভাপতিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। তরিকুলের জন্ম ১৯৪৬ সালের ১৬ নভেম্বর যশোরে। তার বাবা আবদুল আজিজ একজন ব্যবসায়ী ছিলেন।

তরিকুল ছাত্রজীবনে বাম রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন; স্বাধীনতার আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেওয়ার পরও সক্রিয় ছিলেন বাম আন্দোলনে। পরে মওলানা ভাসানীর দলে থাকা অবস্থায় ১৯৭৮ সালে জিয়াউর রহমানের ডাকে বিএনপিতে যোগ দেন তরিকুল। মৃত্যু পর্যন্ত এই দলেই ছিলেন। তরিকুল যশোর থেকে প্রকাশিত লোকসমাজ সংবাদপত্রের প্রকাশক ছিলেন। যশোর পৌরসভার চেয়ারম্যানও ছিলেন তিনি।

বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু জানান, তরিকুল ইসলামের জানাজা আজ সোমবার সকাল ১০টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে হবে। এরপর সোয়া ১১টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণপ্লাজায় হবে দ্বিতীয় জানাজা। বিকেলে যশোর ঈদগাহ মাঠে বিকেল ৪টায় তৃতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে তাকে।

 

"