গ্রেনেড হামলা মামলার রায়

জেলায় জেলায় আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল

প্রকাশ : ১১ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় আনন্দ মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

কুমিল্লা : রায় ঘোষণার পর মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আনন্দ মিছিল বের করা হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন মহানগর যুবলীগের সভাপতি আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ ও আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম টুটুল। নেতারা টাউন হল মুক্তমঞ্চে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মামলার রায় দ্রুত কার্যকরের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

খাগড়াছড়ি : রায়ের পর আনন্দ মিছিল করেছে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন। পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলর নেতৃত্বে মিছিলটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। এতে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মনির হোসেন, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি মেহেদী হাসান হেলাল, সাধারণ সম্পাদক কে এম ইসমাইল হোসেন, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি টিকো চাকমা বক্তব্য দেন।

ফরিদপুর : রায় ঘোষণার পর ফরিদপুরে আনন্দ মিছিল এবং মিষ্টি বিতরণ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শহরের থানা রোডের দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে আনন্দ মিছিল করা হয়। পরে প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশে বক্তব্য দেন কোতোয়ালি আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাক মোল্লা, দলের শহর সভাপতি খন্দকার নাজমুল ইসলাম লেভী প্রমুখ।

গাইবান্ধা : গ্রেনেড হামলার রায়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক জিয়ার ফাঁসির রায় না হওয়ায় জেলা যুবলীগ শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে। জেলা যুবলীগ সভাপতি সরদার মো. শাহীদ হাসান লোটন ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আহসান হাবিব রাজিবের নেতৃত্বে মিছিলটি শহরের ১ নং ট্রাফিক মোড় থেকে বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় সেখানে গিয়ে শেষ হয়।

কিশোরগঞ্জ : রায়ের পর আনন্দ উল্লাস করেছে জেলা ছাত্রলীগ। কিশোরগঞ্জের স্টেশন রোডের দলীয় কার্যালয়ের সামনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলীর নেতৃত্বে উল্লাস করে জেলা ছাত্রলীগের নেতারা। এ সময় ছিলেন, সহসভাপতি সৈয়দ মুনিম, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. ফয়জুল্লাহ ফয়সাল প্রমুখ।

সিরাজগঞ্জ : গ্রেনেড হামলার রায়ে জেলা শহর ও বিভিন্ন উপজেলায় আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরের মানুষ আনন্দ র‌্যালি করেছে। এ সময় জনগণের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করা হয়। রায় উপলক্ষে বেলকুচি উপজেলায় এক মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা বের হয়ে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পথসভার মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

নড়াইল : জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দুটি আনন্দ মিছিল করা হয়েছে। দুপুর সোয়া ১২টায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নিজামউদ্দিন খান নিলুর নেতৃত্বে পুরাতন টার্মিনাল এলাকায় মিছিল বের হয়ে চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। এদিকে, রায় ঘোষণার পরই রূপগঞ্জ এলাকা থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক ও নড়াইল পৌর মেয়র মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাসের নেতৃত্বে একটি মিছিল বের করা হয়।

বাগেরহাট : রেলরোডের দলীয় কার্যালয় থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল বের করে শহর প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে মিলিত হয়। এর আগে বেলা ১১টার পর থেকে আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠন যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, শ্রমিকলীগ, তাঁতীলীগের খ- খ- মিছিল রেলরোডের দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে এসে জড়ো হয়।

ঝিনাইদহ : জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে একটি আনন্দ মিছিল বের করেন নেতাকর্মীরা। মিছিলটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পায়রা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। এ সময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়ে অবিলম্বে রায় কার্যকর ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানানো হয়।

সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা শহর ও কলারোয়া উপজেলায় আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতারা। শহরে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে রায় ঘোষণার পর আনন্দ মিছিল হয়।

গাজীপুর : রায় কেন্দ্র করে সকাল থেকেই রাজপথ দখলে রাখে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। সকালে চান্দনা চৌরাস্তা, শহরে দলীয় কার্যালয়, টঙ্গী, বোর্ডবাজার, কোনাবাড়ি, কাশিমপুরসহ বিভিন্ন স্থানে একই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়।

সিলেট : রায় উপলক্ষে সিলেট নগরে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা। গতকাল দুুপুর দেড়টায় নগরে মিছিল শেষে কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশ করে আওয়ামী লীগ। এর আগে সকাল থেকেই রায়কে কেন্দ্র করে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা প্রতিহত করতে সোবহানীঘাটের দলীয় কার্যালয়ে অবস্থান নেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন কামরান ও সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদসহ নেতারা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : রায় ঘোষণার পর আনন্দ মিছিল করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। গতকাল দুপুরে জেলা শহরের শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ ভাষা চত্বর থেকে আনন্দ মিছিল বের করে আওয়ামী লীগ। এতে দলটির অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতারাও অংশ নেন।

টাঙ্গাইল : গ্রেনেড হামলা মামলার অন্যতম আসামি বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সাবেক শিক্ষা উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টু ও তার ভাই জঙ্গি নেতা তাজউদ্দীনের মৃত্যুদ- হওয়ায় তাদের নিজ জেলা টাঙ্গাইলে আনন্দ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধা জনতা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : রায়কে স্বাগত জানিয়ে শিবগঞ্জে আনন্দ র‌্যালি হয়েছে। গতকাল দুপুরে সংসদ সদস্য গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে মোটর শোভাযাত্রা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সামসুর রহমান বাবু, কানসাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. বেনাউল ইসলামসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতারা ছিলেন। এ ছাড়া জেলা শহরেও আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ আনন্দ র‌্যালি বের করে।

নাটোর : রায় কেন্দ্র করে নাশকতা ও বিশৃঙ্খলা রোধে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা ও সমাবেশ করেছে জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। শহরের কাচারীমাঠ এলাকা থেকে নাটোর সদর আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের নেতৃত্বে মোটরসাইকেল শোডাউন হয়। পরে নাটোর প্রেস ক্লাবের সামনের সমাবেশে বক্তব্য দেন সদর আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মর্তুজা আলী বাবলু প্রমুখ।

রাবি : রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন রাবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে তারেক রহমানের ফাঁসির রায় হওয়া উচিত ছিল বলে তারা মন্তব্য করেন। শেষে নেতাকর্মীদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেন ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ রুনু।

 

"