খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন

ফখরুল

প্রকাশ : ০৯ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ সরকারের কোনো আইন আমরা মানি না। কারণ যে সংসদ তা পাস করে, তাদের বৈধতা নেই। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজধানীর লেকশোর হোটেলের হলরুমে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮’ পাসের প্রতিক্রিয়ায় ফখরুল বলেন, ‘এ সরকারের কোনো আইন আমরা মানি না। প্রধানমন্ত্রী বোধহয় কালো হরিণ চোখে দেখতে পেয়েছেন। অত্যন্ত দুঃখের, হতাশার, ক্ষোভের কথা এই যে, আমরা যে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছি, যে স্বপ্ন দেখেছি, এই সরকার তা ধূলিস্যাৎ করে দিয়েছে। এ দলটি একটার পর একটা কালো আইন চাপিয়ে দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আপনাদের এখনো সময় আছে। শেষ সময় হয়নি এখনো। উপলব্ধি করার সময় আছে। যিনি আপনাদের রক্ষাকর্তা, সেই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন। একমাত্র তিনি আপনাদের মুক্তি দিতে পারবেন। তাকে মুক্ত করুন, আলোচনা করুন। কীভাবে একটি জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে তা নিয়ে আলোচনা করুন।’ বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। জনগণকে জিম্মি করে কিছুদিনের জন্য ক্ষমতায় থাকা যায়। চিরদিনের জন্য নয়।’

বিএনপি আয়োজিত সভায় ‘কি-নোট’ উপস্থাপন করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, সঞ্চালনা করেন প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মো. নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, রুহুল আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন বক্তব্য দেন।

ঢাকায় নিযুক্ত ইউকে, কানাডা, চায়না, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, আফগানিস্তান, ফিলিস্তিন, রাশিয়া, তুর্কি, ভিয়েতনামের দূতাবাসের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

"