শিক্ষার্থীকে বাস থেকে ফেলে হত্যাচেষ্টা

অর্থ সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ছাড়িয়ে নেওয়া হলো ৪ বাস

প্রকাশ | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি

সাভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাস থেকে ফেলে দিয়ে এক শিক্ষার্থীকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় চারটি বাস আটকের পর ওই শিক্ষার্থীর পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পুলিশের মধ্যস্থতায় চারটি বাস মুক্ত করে নেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রিসার্চের (নিটার ) ক্যাম্পাস থেকে বাসগুলো প্রতিবাদী ও ক্ষুব্ধ ছাত্রদের কাছ থেকে মুক্ত করে নেওয়া হয়।

পুলিশ জানায়, গত শনিবার রাজধানীর আজিমপুর থেকে আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রিসার্চের (নিটার) শিক্ষার্থী আসমা আক্তার ক্যাম্পাসে আসার জন্য নীলাচল পরিবহনে উঠেন। পরে তার সঙ্গে বাসের ভেতরে ভাড়ার টাকা নিয়ে ওই বাসের কন্ট্রাকটার সবুজ মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বাসটি আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকায় ক্যাম্পাসের সামনে এলে ওই বাসের হেলপার ওই শিক্ষার্থীকে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দিয়ে হত্যার চেষ্টা করে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ওই শিক্ষার্থীকে দ্রুত উদ্ধার করে আশুলিয়ার একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। এর পর ওই ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরা হেলপার ও ড্রাইভারের শাস্তির দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলাচলরত নীলাচল পরিবহনের চারটি বাস আটক করে রাখে।

গতকাল মঙ্গলবার আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ রিজাউল হক দিপুর মাধ্যমে ওই শিক্ষার্থীর পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতার কথা বলে আটকে রাখা বাসগুলো ক্যাম্পাস থেকে ছাড়িয়ে নেওয়া হয়। এ বিষয়ে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রিসার্চের (নিটার) শিক্ষার্থীরা ওই বাসের চালক ও হেলপারের কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন।

"