আইনজীবী সমিতির অভিযোগ

খালেদা জিয়াকে সাজা দিতেই কারাগারে আদালত

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বেআইনিভাবে সাজা দিতেই কারাগারের ভেতরে আদালত বসানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ব্যানারে সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে বেআইনিভাবে সাজা দিতেই একটি অস্থায়ী আদালত গঠন করা হয়েছে, যাতে সাধারণ জনগণ বিচারের কার্যক্রম দেখতে বা বুঝতে না পারে।

জয়নুল দাবি করেন, সংবিধান লঙ্ঘন করে সরকার পরিত্যক্ত কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ী আদালত গঠন করেছে। সংবিধানের ৩৫(৩) অনুচ্ছেদ ও ফৌজদারী কার্যবিধি ৩৫২ ধারায় আদালত বলতে উন্মুক্ত আদালতের কথা বলা হয়েছে; যেখানে যেকোনো মানুষের সাধারণভাবে প্রবেশাধিকার থাকে। পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের যে কক্ষটিকে আদালত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে, সেখানে পাবলিক তো দূরের কথা, বেগম জিয়া ও অন্য আসামিদের নিয়োজিত আইনজীবীরা, আসামিদের আত্মীয় স্বজন কিংবা দলীয় নেতা-নেত্রীদের প্রবেশ এবং আদালতের কার্যক্রম দেখা বা শোনার কোনো সুযোগ নেই।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন, সহসভাপতি গোলাম মোস্তফা ছাড়াও বিএনপিপন্থি আইনজীবী গোলাম রহমান ভুঁইয়া, নিতাই রায় চৌধুরী, সানাউল্লাহ মিয়া, বদরুদ্দোজা বাদল, আমিনুল ইসলাম, গাজি কামরুল ইসলাম, এ কে এম এহসানুর রহমান, আহসানুল্লাহ ও মেহেদী হাসান উপিস্থিত থাকলেও সমিতির আওয়ামীপন্থি আইনজীবী নেতাদের কেউই ছিলেন না।

এদিকে, সংবাদ সম্মেলনের পর বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম কারা অভ্যন্তরে অস্থায়ী আদালত স্থাপনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কর্মসূচি ঘোষণা করে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ৯ সেপ্টেম্বর সারা দেশের আইনজীবী সমিতিতে মানববন্ধন ও ১২ সেপ্টেম্বর প্রতীকী অনশন।

"