খালেদার নিরাপত্তার কারণেই কারাগারে আদালত : আইনমন্ত্রী

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

আইন, বিচার ও সংসদ-বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই কারাগারে আদালত বসানো হয়েছে। এটা ক্যামেরা ট্রায়াল নয়। তিনি বলেন, নিরাপত্তাজনিত বা অন্য কোনো কারণে সাত মাস মূল আসামি কোর্টে হাজিরা দিচ্ছেন না। তাই নিরাপত্তা আরো সুনিশ্চিত করার জন্য সেখানে কোর্ট বসানো হয়েছে। এতে কারো অধিকার খর্ব করা হয়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার তেজগাঁওয়ে সমকাল আয়োজিত ‘সমতলের ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ও দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষা : প্রাতিষ্ঠানিক নীতি কাঠামোর দাবি’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। আইনমন্ত্রী বলেন, একটা কথা উঠেছে এটা ক্যামেরা ট্রায়াল। ক্যামেরা ট্রায়ালের সংজ্ঞা হচ্ছে যেখানে কোনো পাবলিক বা মিডিয়াকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। যেখানে শুধু বিচারক, আসামি আর প্রয়োজন হলে তার আইনজীবীকে রাখা হয়। এমনকি এর কোনো তথ্যাদি প্রকাশও করা যাবে না। এমন যদি হয় তাহলেই ক্যামেরা ট্রায়াল হয়।

আদালতে খালেদা জিয়ার বক্তব্যের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, ‘এটা হয়তো তার ইমোশনাল বক্তব্য। এটাকে আমি খুব একটা গুরুত্ব দেব না।’

সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তাফিজ শফির সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান, অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল প্রমুখ।

"