বাসচাপায় ফের প্রাণ গেল ছাত্রের

প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

স্কুল ছুটির পর বাইসাইকেল নিয়ে ছাত্রাবাসের উদ্দেশে রওনা হয়েছিল দশম শ্রেণির ছাত্র মো. জিয়ন। কিন্তু ফেরা হয়নি তার। দ্রুতগামী একটি মিনিবাসের চাপায় পথেই প্রাণ হারিয়েছে সে। এ ঘটনায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ায় পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ারসেল ছুঁড়ে পুলিশ। গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রংপুর নগরীর দর্শনা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া একইদিন রাজধানীর পল্টনে বাসের ধাক্কায় এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া সাভার, খুলনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়কে প্রাণ গেছে দুজনের।

রংপুর : রংপুর-কুড়িগ্রাম মহাসড়কের দর্শনায় নিহত মো. জিয়ন বদরগঞ্জ উপজেলার নাগেরহাটের মো. জাহেদুল ইসলামের ছেলে ও রংপুর কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র। সে দর্শনার মেঘলা ছাত্রাবাসে থেকে লেখাপড়া করত। দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা দুটি বাস ও একটি অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ায় পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ার সেল ছুঁড়ে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্কুল থেকে সাইকেলযোগে ছাত্রাবাসে ফিরছিল জিয়ন। এ সময় রংপুর থেকে গাইবান্ধাগামী একটি মিনিবাস পেছন থেকে তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় দুটি বাস ও একটি অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করে তরা। অবরোধের কারণে সড়কের দুই পাশে শতশত যানবাহন আটকা পড়ে। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তরের জন্য নিয়ে গেলে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা পুলিশের ওপর চড়াও হয়ে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় রংপুর কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) মোক্তারুল ইসলামসহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক মিনিবাসটি আটকে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ওই এলাকায় যেন আর কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সে জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা চলছে।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, পল্টন জিরো পয়েন্ট ইম্পেরিয়াল হোটেল সংলগ্ন রাস্তায় বিকেল ৩টার দিকে প্রেস ক্লাবগামী খাজা পরিবহন নামে একটি বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাত যুবকের মৃত্যু হয়েছে। পল্টন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ওয়ালিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন জানান, দুর্ঘটনার পর দ্রুত ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘাতক বাসটি জব্দ করা হয়েছে, চালক পালিয়ে গেছে। নিহত ব্যক্তির পরনে রয়েছে চেক লুঙ্গি, কোমরে লাল গামছা ও হাফ হাতা শার্ট। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

সাভার : ঢাকা-আরিচা মহাসড়কেন আমিনবাজারে গতকাল সকালে পিকআপ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গিয়াস উদ্দিন নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরেক যুবক। নিহত যুবক পিকআপ ভ্যানের চালক ও বাগেরহাটের ফকিরহাট থানার ভট্টখামার গ্রামের আইয়ুব গাজীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, সকালে গিয়াস নিজের পিকআপ ভ্যানে করে সবজি নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। ভ্যানটি মহাসড়কের আমিনবাজার এলাকায় এলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অন্য একটি মালবাহী ট্রাকের পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ সময় পিকআপ ভ্যানের সামনে অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই গিয়াসের মৃত্যু হয় ও আহত হয় তার ভাগ্নে। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। এ ছাড়া আহত যুবককে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

খুলনা : খুলনা-যশোর মহাসড়কের সুপার জুট মিলের সামনে গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মো. লিটন নামের এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন। তিনি নড়াইলের কালিয়ার পেরোলি গ্রামের আকবর সরদারের ছেলে। তিনি ফুলতলা এলাকাতেই ভ্যান চালাতেন। ফুলতলা থানার উপপরিদর্শক আবদুল আলিম জানান, খুলনা থেকে যশোরগামী একটি খালি ট্রাক বিপরীত দিক থেকে আসা একটি গাছের চারাবাহী রিকশা-ভ্যানকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক লিটন নিহত হন। দুর্ঘটনার পর ট্রাকটি ফেলে চালক পালিয়ে যায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিশ্বরোড এলাকায় গতকাল দুপুরে চলন্ত ট্রাক থেকে ছিটকে পড়ে সন্তোষ রায় নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। সন্তোষ হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার আদাঐর এলাকার হরি রায়ের ছেলে। খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ওসি হোসেন সরকার জানান, দুপুরে নরসিংদী থেকে ট্রাকে করে কাঁঠাল নিয়ে মাধবপুরে ফিরছিলেন সন্তোষ। ট্রাকটি বিশ্বরোড এলাকার ফাহাদ ফিলিং স্টেশনের সামনে এলে ট্রাকের ওপর থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

"