বেনাপোলে ৬৩৫টি স্বর্ণের বারসহ তিন পাচারকারী আটক

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

বেনাপোল প্রতিনিধি

১১ ঘণ্টার ব্যবধানে ভারতে পাচারকালে বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৬৩৫টি স্বর্ণের বারসহ তিন পাচারকারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা। গত বৃহস্পতিবার রাতে ও গতকাল শুক্রবার সকালে বেনাপোলের শিকারপুর ও শিকড়ি সীমান্ত এলাকা থেকে পৃথক অভিযানে এসব স্বর্ণের বার আটক করা হয়। এত বিপুল পরিমাণ সোনা উদ্ধারের ঘটনা বাংলাদেশে বিরল। উদ্ধার করা সোনা ভারতে পাচার করা হচ্ছিল। তবে স্বর্ণের মূল মালিককে আটক করা যায়নি। যশোর ৪৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আরিফুল হক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেনাপোলের শিকারপুর সীমান্তের নারিকেলবাড়িয়া এলাকা থেকে ৭২ কেজি ৭৫৯ গ্রাম স্বর্ণ (৬২৪ টি বার) এবং একটি রামদাসহ মহিউদ্দিন (৩৫) নামের এক পাচারকারীকে আটক করা হয়। আটক মহিউদ্দিন যশোর জেলার শার্শা উপজেলার শিকারপুর গ্রামের মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে।

অপর এক অভিযানে শুক্রবার সকাল ৮টার সময় বেনাপোল পোর্ট থানার বেনাপোল-পুটখালি সড়কের শিকড়ি নামক স্থান থেকে ১১ টি স্বর্ণের বারসহ (২ কেজি) সফুরা খাতুন (৬২) ও ইসরাফিল (২২) নামের ২ স্বর্ণ পাচারকারীকে আটক করা হয়। আটক সফুরা খাতুন বেনাপোল পোর্ট থানার দৌলতপুর গ্রামের কাশেম আলীর স্ত্রী। ইসরাফিল একই থানার ভবারবেড় গ্রামের ইব্রাহিমের ছেলে। উদ্ধার করা স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ৩৬ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। স্বর্ণসহ আটক তিন পাচারকারীকে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে বিজিবি জানায়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, বিজিবি স্বর্ণসহ তিনজন পাচারকারীকে পোর্ট থানায় সোপর্দ করেছে। এ ব্যাপারে থানায় স্বর্ণ পাচার আইনে পৃথক মামলা হয়েছে।

 

"