‘মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় সাক্ষ্য দেওয়ায়’ খুন

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

যশোর প্রতিনিধি

যশোরে এক বৃদ্ধ খুন হয়েছেন; যাকে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় সাক্ষ্য দেওয়ায় হত্যা করা হয়েছে বলে পরিবারের অভিযোগ। গতকাল বুধবার ভোরে প্রেমচারা গ্রামে হত্যাকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। নিহত তফসির মোল্লা (৭৫) বাড়ির বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলেন।

বাঘারপাড়া থানার ওসি মনিরুল আলম জানান, সকালে বাড়ির লোকজন তার গলাকাটা দেখতে পান। ওই এলাকার মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি আমজাদ হোসেনের পরিবারের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তুলেছেন নিহতের স্বজনরা। তফসির মোল্লার চাচাত ভাই ইয়াহিয়া রহমান বলেন, ‘তিনি নিজে ও তার ভাই তফসির মোল্লা একটি মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার সাক্ষী। ওই মামলার আসামি আমজাদ হোসেন। মামলার পর থেকে আমজাদের ছেলে খোকন সাক্ষ্য দিতে নিষেধ করেন। আমরা সাক্ষ্য দিলে আমাদের বংশে বাতি দেওয়ার মতো কাউকে রাখা হবে না বলে হুমকি দেন। তবু আমরা সাক্ষ্য দেওয়ায় আমার ভাইকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।’

বছরখানেক আগে মামলা হওয়ার পর দুই পরিবারে দ্বন্দ্ব শুরু হয় বলে জানিয়েছেন বন্দবিলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সবদুল হোসেন খান। তিনি বলেন, এক বছর ধরে তাদের মধ্যে গন্ডগোল চলে আসছে। দুই মাস আগে মামলার আসামিপক্ষে জবেদ আলী নামে এক ব্যক্তি খুন হন। তফসির হত্যাকান্ড তারই ধারাবাহিকতা বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে বলে জানিয়েছেন ওসি মনিরুল আলম। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

"