তলা ফেটে পদ্মায় আটকে গেল ফেরি রানীক্ষেত

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ী যাওয়ার পথে তলা ফেটে ডাম্প ফেরি রানীক্ষেত মাঝ পদ্মায় আটকা পড়ে। ফেরিতে ২০টি যানবাহন ও বেশ কয়েকজন যাত্রী ছিল। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ফেরির তলা ফেটে যায়। বিআইডব্লিউটিসি ও ফায়ার সার্ভিসের যৌথ প্রচেষ্টায় বিকেল ৩টার দিকে ফেরিটি উদ্ধার করা হয়। ফেরিটিকে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে নেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, ২০টি যানবাহন ও বেশ কয়েকজন যাত্রী নিয়ে ডাম্প ফেরি রানীক্ষেত শিমুলিয়া ঘাট থেকে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে যাচ্ছিল। পরে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ফেরির তলা ফেটে যায়। এ সময় ফেরিতে পানি উঠলে তা চরের পাশে নেওয়া হয়। পরে পাম্প দিয়ে পানি অপসারণ করা হয়।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ জানান, লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ফেরির তলা ফেটে যায়। তাৎক্ষণিক দুটি লঞ্চের মাধ্যমে ফেরির যাত্রীদের কাঁঠালবাড়ী ঘাটে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। পরে শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিস ও বিআইডব্লিউটিএর ছয়টি নিষ্কাশন পাইপ পানি অপসারণে কাজ করে।

জানা যায়, পদ্মা নদীতে পানি কমতে থাকায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌপথের লৌহজং টার্নিংয়ে দেখা দিয়েছে তীব্র নাব্য সংকট। কয়েকটি পয়েন্টে পানির গভীরতা কম থাকায় বেশি ড্রাফটের রো রো ফেরিগুলো চলাচল করতে পারছে না। ফলে গত শনিবার রাত থেকেই এ রুটের তিনটি রো রো ফেরি চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। বাকি ফেরি মাটির তলদেশ ঘেঁষে কোনোমতে চলাচল করছে।

রো রো ফেরি শাহ পরানের মাস্টার ইনচার্জ আবদুল করিম বলেন, ‘লৌহজং টার্নিংসহ নদীর কয়েকটি পয়েন্টে পানি কমে নাব্য সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে। এতে আমাদের জাহাজের তলদেশ মাটির সঙ্গে ঠেকে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও চরে আটকে থাকতে হচ্ছে দীর্ঘ সময়।’

 

"