হয়রানি করলে ব্যবস্থা : ইসি

প্রকাশ : ১৫ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

সিলেট প্রতিনিধি

নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পুলিশ প্রশাসন অযথা কোনো হয়রানি করবে না; কোনো কর্মকর্তা অযথা হয়রানি করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গতকাল শনিবার নগরীর রিকাবিবাজারস্থ কবি নজরুল অডিটরিয়ামে সিসিক নির্বাচনে মেয়র-কাউন্সিলরদের নিয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সিসিক নির্বাচনে অস্ত্র ও অস্ত্র ছাড়া আনসার বাহিনী মোতায়েন থাকবে। এ ছাড়া র‌্যাব-পুলিশ-বিজিবি প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি মোতায়েন করা হবে। আমরা সিলেটকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেব।’ ইসি আরো বলেন, ‘কোনো কারণে যদি প্রয়োজন হয়, তবে আমরা অন্য ফোর্স ডাকতে বাধ্য হব। তবে আমার বিশ্বাস, যে ফোর্স আমরা মোতায়েন করছি সেটা প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত।’

সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের প্রশ্নে ইসি বলেন, ‘কিসের জন্য সেনাবাহিনী প্রয়োজন হবে? সিলেটবাসী

কি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করবে? যদি যুদ্ধ ঘোষণা করে, তবে সেনাবাহিনী ডাকব।’ নির্বাচনী প্রচারের সময় বিনা পরোয়ানায় কাউকে গ্রেফতার না করার নির্দেশনা দেন ইসি।

এদিকে গতকাল শনিবার প্রচ- তাপদাহ উপেক্ষা করে সকাল থেকে সিলেট নগরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেছেন সিসিক নির্বাচনে ২০ দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। সকালে নগরের দরগা মহল্লা, মীরের ময়দান ও আলিয়া মাদরাসা মাঠের পশ্চিম এলাকায় গণসংযোগ করেন আরিফুল। অপরদিকে নগরের কামালগড় ও আশপাশ এলাকায় গণসংযোগ করেন কামরান।

আর দক্ষিণ সুরমার কুশিঘাট, গোটাটিকর, অবিনন্দীসহ আশপাশের বাসাবাড়ি ও পাড়া-মহল্লায় আরিফুলের পক্ষে গণসংযোগ করেছেন তার সহধর্মিণী সামা হক চৌধুরী। শনিবার বেলা ১১টার দিকে তিনি এসব এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় আরিফুলের জন্য ধানের শীষে ভোট চাওয়ার পাশাপাশি সবার কাছে দোয়া চান তিনি।

গণসংযোগকালে আরিফুল নগরের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকা- ভোটারদের মাঝে তুলে ধরেন এবং তার অসমাপ্ত কাজ পূর্ণ করতে নগরবাসীকে ধানের শীষে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘যেসব উন্নয়নকাজ করেছি, তা আজ দৃশ্যমান এবং নগরবাসী প্রতিটি উন্নয়নকাজের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমার কর্মকান্ড অবলোকন করেছেন।’ তিনি আরো বলেন, ‘সিলেটবাসী শান্তিপ্রিয় এবং উন্নয়নকামী। শান্তিপূর্ণভাবেই তারা ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং ধানের শীষে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।’

অপরদিকে বদর উদ্দিন আহমদ কামরান জানান, নগরবাসী তাদের প্রিয় প্রতীক নৌকায় ভোট দিতে উদগ্রীব হয়ে আছেন। এবার প্রথম নৌকা প্রতীকে সিটি নির্বাচন হওয়ায় সর্বত্র উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তিনি জানান, সিটি নির্বাচন সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হবে; তাতে কোনো সন্দেহ নেই। তিনি নগরের উন্নয়নে আগামী ৩০ জুলাই নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। শনিবার নগরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে মেয়র প্রার্থীরা এসব কথা বলেন।

"