সংসদে চট্টগ্রাম ও খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল পাস

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

সংসদ প্রতিবেদক

জাতীয় সংসদে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) বিল-২০১৮ এবং খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কেডিএ) বিল-২০১৮ পাস হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন সংসদে বিল দুইটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিল দুইটি পাসের আগে জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব করলে তা কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। গত ১৫ জানুয়ারি বিল দুইটি উত্থাপনের পর তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে গত ১৩ মে সংসদে জমা দেয় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

বিদ্যমান অধ্যাদেশ সংশোধন, পরিমার্জন ও যুগোপযোগী করে নতুন আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে আনা ওই দুইটি পৃথক বিলে বলা হয়েছে, অধ্যাদেশের অধীন প্রতিষ্ঠিত উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ দুইটিকে এমনভাবে বহাল রাখার বিধান করা হয়, যেন তা বিলের বিধান অনুযায়ী প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। দুইটিতেই একজনকে চেয়ারম্যান করে ১৩ সদস্যের কর্তৃপক্ষ গঠনের বিধান রাখা হয়েছে।

এছাড়া বিলে উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ক্ষমতা ও কার্যাবলি, কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী, কর্তৃপক্ষের সভা, পরামর্শ বা সহযোগিতা, কমিটি গঠন, মহাপরিকল্পনা, উন্নয়ন প্রকল্প, মহাপরিকল্পনা সংশোধন, জনস্বার্থ অন্তর্বর্তী উন্নয়ন প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন, বিনোদন ও পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মালিকানাধীন ভূমি ও ইমারত ন্যস্তকরণ, ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি হস্তান্তর, কর্তৃপক্ষের কাছে ন্যস্ত করা সরকারি রাস্তা, নর্দমা, চত্বর, ইমারত, ভূমি অথবা এর অংশ বিশেষ রক্ষণাবেক্ষণ, উন্নয়ন কর ধার্যের ক্ষমতা, তহবিল, হিসাবরক্ষণ ও নিরীক্ষা, বার্ষিক বাজেট, কর্মচারী নিয়োগ, জনসেবক নিয়োগসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রয়োজনীয় বিধানের প্রস্তাব করা হয়েছে।

কমিটি রিপোর্ট উত্থাপন : বিদ্যুৎ জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ আইনের মেয়াদ আরো তিন বছর বাড়াতে জাতীয় সংসদে উত্থাপিত ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) (সংশোধন) বিল-২০১৮’ পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সংসদে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে। বিদ্যুৎ, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম ওই প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গত ৪ জুলাই সংসদ অধিবেশনে বিলটি উত্থাপন করলে তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

এছাড়া নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম সংসদীয় কমিটির পঞ্চম রিপোর্ট সংসদে উত্থাপন করেন। গত চার বছরে সংসদীয় কার্যক্রম সংক্রান্ত আরো চারটি প্রতিবেদন সংসদে উত্থাপন করা হয়।

"