ডিএসসিসির ১৩ পশুর হাট

২ কোটি ৭১ লাখ টাকায় ছয় হাটের ইজারা

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতাধীন ১৩টি পশুর হাটের মধ্যে ছয়টি হাটের ইজারা সম্পন্ন হয়েছে। এই ছয়টি হাট ২ কোটি ৭০ লাখ ৯৭ হাজার ১৫০ টাকায় ইজারা দিয়েছেন সংস্থাটি। এ ছাড়া বাকি সাতটিতে কোনো টেন্ডারই পড়েনি। এই হাটগুলোর জন্য আজ থেকে দরপত্র বিক্রি শুরু হবে। এই দরপত্র বিক্রি শেষ তারিখ আগামী ১৮ জুলাই (বুধবার) পর্যন্ত। রাজধানীতে চলছে কোরবানি পশুরহাট ইজারার সর্বশেষ প্রস্তুতি। এবারের ঈদুল আজহায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ১৩টি ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আটটি, মোট ২১টি স্থানে বসবে পশুর হাট। ইতোমধ্যে ছয়টি হাটের ইজারা শেষ করেছে (ডিএসসিসি)। উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেট বাজার সংলগ্ন মৈত্রী সংঘের মাঠ আবদুল লতিফ ইজারা নিয়েছে আট লাখ ২০ হাজার টাকায়, যা গত বছর ইজারা হয়েছিল ৮ লাখ ১ হাজার টাকায়। জিগাতলা হাজারীবাগ মাঠ ইজারা নিয়েছেন জাহিদুল কবির জাহিদ ১৫ লাখ টাকায়, যা গত বছর ইজারা হয়েছিল ৯০ লাখ টাকায়। গত বছরে রহমতগঞ্জ খেলার মাঠটি ১০ লাখ ৬৫ হাজার টাকায় ইজারা হওয়া মাঠটি এবার হাজী শফি মাহমুদ নিয়েছেন ১১ লাখ ৭ হাজার ১৫০ টাকায়। কামরাঙ্গীরচর ইসলাম চেয়ারম্যানের বাড়ির মোড় হতে বুড়িগঙ্গা নদীর বাঁধ সংলগ্ন জায়গা ইজারা পেয়েছেন আবুল হোসেন সরকার ৫ লাখ ২০ হাজার টাকায়, যা গত বছরও একই দামে ইজারা হয়েছিল। পোস্তগোলা শশ্মান ঘাট সংলগ্ন পশুরহাটি গত বছর ইজারা হয়েছিল ৩৫ লাখ ১৫ হাজার টাকায়, যা এবার ইজারা নিয়েছে আসাদুজ্জামান ২৬ লাখ ৫০ হাজার টাকায়। এ ছাড়া শ্যামপুর বালুর মাঠ কদমতলীর হাট মো. মাসুক রহমান ১ কোটি পাঁচ লাখ টাকায়। বাকি সাতটি হচ্ছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন সংলগ্ন বালুর মাঠ, কমলাপুর স্টেডিয়ামের পাশে খালি জায়গা, আরমানিটোলা খেলার মাঠ ও আশেপাশে খালি জায়গা এবং রাস্তার পূর্ব পাশ, মেরাদিয়া বাজার সংলগ্ন খালি জায়গা, আরমানিটোলা খেলার মাঠ, দনিয়া কলেজ মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা ও সাদেক হোসেন খোকা মাঠ। এই বিষয়ে ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা আবদুল মালেক বলেন, ডিএসসিসির ১৩টি হাটের মধ্যে ছয়টি হাটের ইজারা সম্পন্ন হয়েছে। বাকি সাতটি হাটের জন্য ১১ জুলাই (বুধবার) আজ থেকে পুনঃদরপত্র বিক্রি শুরু হবে। এই দরপত্র বিক্রি হওয়ার শেষ তারিখ আগামী ১৮ জুলাই পর্যন্ত। দ্বিতীয় দফায়ও যদি ইজারা সম্পন্ন না হয়, তাহলে ২০ জুলাই থেকে আবার পুনঃদরপত্র বিক্রি শুরু করা হবে।

উল্লেখ্য, আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকায় ২০টি অস্থায়ী কোরবানির পশুর হাট বসবে। এ ছাড়া স্থায়ী হাট গাবতলী পশুর হাটেও উঠবে পশু। এ লক্ষ্যে দুই সিটি করপোরেশন ২৮ জুন বৃহস্পতিবার টেন্ডার আহ্বান করেছে। ডিএসসিরি ১৩টি ছাড়াও ডিএনসিসিতে বসবে আটটি পশুর হাট। ডিএনসিসির আটটি পমুর হাটের মধ্যে উত্তরা ১৫নং সেক্টরের প্রথম গোলচত্বর সংলগ্ন খালি জায়গা, খিলক্ষেত ৩০০ ফুট সড়ক ও দক্ষিণ পাশের বসুন্ধরা প্রাচীরের মধ্যবর্তী খালি জায়গা, ভাটারা (সাইদ নগর) পশুর হাট, বাড্ডা ইস্টার্ন হাউজিংয়ের (আফতাব নগর) পূর্বপাশের খালি জায়গা, মোহাম্মদপুর বুদ্ধিজীবী সড়ক সংলগ্ন (বছিলা) পুলিশ লাইনের খালি জায়গা, মিরপুর সেকশন-৬, ওয়ার্ড-০৬, (ইস্টার্ন হাউজিংয়ের খালি জায়গা), মিরপুর ডিওএইচএস সংলগ্ন উত্তর পাশের সেতু প্রোপার্টি হাউজিংয়ের ফাঁকা জায়গায় বসবে কোরবানির পশুর হাট।

"