হলুদ কার্ডের ডাবল সেঞ্চুরি

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

আমির হোসেন

দেখতে দেখতে শেষের পথে বিশ্বকাপ। আর মাত্র তিনটি ম্যাচ। এর পরই পর্দা নামবে গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ খ্যাত বিশ্বকাপের। এবারের বিশ্বকাপ অনেক রেকর্ডের জন্ম দিয়ে এগিয়ে চলছে। এগিয়ে চলছে অন্যান্য পরিসংখ্যানের বইয়ের কলেবর বড় করে। এবারের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত রেফারিরা ৩২ দলের খেলোয়াড়দের ২০৫টি হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে হলুদ কার্ডের ডাবল সেঞ্চুরি হয়েছে।

শেষ আট পর্যন্ত ম্যাচ প্রতি হলুদ কার্ড দেখার গড় ৩.৪২। এবারের বিশ্বকাপের প্রথম হলুদ কার্ড দেখেছেন রাশিয়ার আলেকসান্দার গ্লোভিন। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে সৌদি আরবের বিপক্ষে ৮৮ মিনিটে তিনি হলুদ কার্ডের দর্শন পান। কিক অফের পর সবচেয়ে কম সময়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে হলুদ কার্ড দেখেছেন মেক্সিকোর জেসাস গালার্দো। তিনি সুইডেনের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে কিক অফের ১৫ সেকেন্ডের মাথায় হলুদ কার্ড দেখেন। যা বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্রুততম।

এবারের বিশ্বকাপে এক ম্যাচে রেফারিরা সর্বোচ্চ ৮টি কার্ড দেখিয়েছেন। তিন ম্যাচে ঘটেছে এই ঘটনা। বিশ্বকাপের পঞ্চম দিনে পানামা ও বেলজিয়ামের ম্যাচে ৮টি হলুদ কার্ড দেখার ঘটনা ঘটে। একই ঘটনা ঘটে ফ্রান্স-আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া-ইংল্যান্ডের ম্যাচেও। রেফারিদের মধ্যে কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন ইরানের আলিরেজা ফাঘানি। ৩ ম্যাচ পরিচালনা করে তিনি ১৫টি কার্ড দেখিয়েছেন। ৩ ম্যাচে ১৪টি কার্ড দেখিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের মার্ক গেইগর। সবচেয়ে কম হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাইর মারুফো ও নিউজিল্যান্ডের ম্যাথিউ কনজার। ১ ম্যাচ পরিচালনা করে তারা ১টি করে কার্ড দেখিয়েছেন।

কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি হলুদ কার্ড দেখেছে ক্রোয়েশিয়া। ক্রোয়াটসরা ৫ ম্যাচে ৭৮টি ফাউল করে ১২টি হলুদ কার্ড দেখেছে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১টি করে হলুদ কার্ড দেখেছে আর্জেন্টিনা ও পানামা। আর্জেন্টিনা ৪ ম্যাচে ৫৫টি ফাউল করে ১১টি হলুদ কার্ডের দর্শন পেয়েছে। অন্যদিকে পানামার খেলোয়াড়রা মাত্র ৩ ম্যাচে ৪৯টি ফাউল করে দেখেছে ১১টি হলুদ কার্ড। দুই অঙ্কের কোটায় আর হলুদ কার্ড দেখেছে কেবল দক্ষিণ কোরিয়া। তারা তিনি ম্যাচে ৬৩টি ফাউল করে ১০টি হলুদ কার্ডের দর্শন পেয়েছে। ৯টি করে কার্ড দেখেছে মেক্সিকো ও সার্বিয়া। ফ্রান্স, সুইডেন ও মরক্কো দেখেছে ৮টি করে হলুদ কার্ড।

হলুদ কার্ড দেখার সপ্তম স্বর্গে রয়েছে বেলজিয়াম, পর্তুগাল, ব্রাজিল, ইরান ও অস্ট্রেলিয়া। বেলজিয়াম ৫ ম্যাচে ৭২টি ফাউল করে ৭টি, পর্তুগাল ৪ ম্যাচে ৫৫টি ফাউল করে ৭টি, ব্রাজিল ৫ ম্যাচে ৫০টি ফাউল করে ৭টি, ইরান ৩ ম্যাচে ৪৪টি ফাউল করে ৭টি ও অস্ট্রেলিয়া ৩ ম্যাচে ৩৭টি ফাউল করে ৭টি হলুদ কার্ড দেখেছে। সবচেয়ে কম হলুদ কার্ড দেখেছে সৌদি আরব। তারা ৩ ম্যাচ খেলে ৩০টি ফাউল করে ১টি হলুদ কার্ড দেখেছে। আর সেটাও হয়েছে রাশিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে। ম্যাচের ৯০+৩ মিনিটে একমাত্র হলুদ কার্ডটি দেখেন সৌদির তাইসের আলজাসাম।

"