সিভিল সার্ভিস সেতুবন্ধ হিসেবে কাজ করে

স্পিকার

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

সংসদ প্রতিবেদক

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে জনগণের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে সিভিল সার্ভিসের কর্মকর্তাদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি বলেছেন, সিভিল সার্ভিসের কর্মকর্তারা দীর্ঘ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাদের মেধা ও যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে চাকরিতে এসেছেন। সিভিল সার্ভিস রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে জনগণের সেতুবন্ধ তৈরি করে। গতকাল রোববার সকালে রাজধানীর বিসিএস অ্যাডমিন একাডেমিতে আইন ও প্রশাসন কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বিসিএস অ্যাডমিন একাডেমির রেক্টর মো. মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমত আরা সাদেক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহমেদ।

অনুষ্ঠানে স্পিকার বলেন, প্রশিক্ষণ জ্ঞানের পরিধি বাড়ায়। আর তথ্য সঠিক ও দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে। আইন ও প্রশাসন কোর্সের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সিভিল সার্ভিসে কর্মরত কর্মকর্তারা জাতি গঠন ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে। তিনি সংবিধান সমুন্নত রেখে বৈষম্য ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।

ড. শিরীন শারমিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে পদার্পণ করেছে। ২০২৪ সালে সম্পূর্ণভাবে উন্নয়নশীল এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে। তিনি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন শেষে বিসিএস অ্যাডমিন একাডেমির লাইব্রেরির মুক্তিযুদ্ধ কর্নার পরিদর্শন করেন। উল্লেখ্য, প্রশিক্ষণ কোর্সে প্রশাসন ক্যাডারের ১১৩ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশ নেন।

"