তৃণমূল নেতাদের শেখ হাসিনা

বিভেদ ভুলে একসঙ্গে কাজ করতে হবে

রাজনীতিবিদদেরই মনোনয়ন দিতে অনুরোধ অধিকাংশ নেতার

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সব ইউনিটের দ্বন্দ্ব ও বিভেদ নিরসন করে দলের জন্য একতাবদ্ধ হয়ে আগামী নির্বাচনে কাজ করতে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে তৃণমূলের মতামত নেওয়া হবে। যাকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হবে, তার পক্ষেই সবাইকে কাজ করতে হবে। গতকাল শনিবার গণভবনে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এদিকে সভায় বঙ্গবন্ধুকন্যা জানান, ১৯৪৭ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা সংস্থার ৪৭টি প্রতিবেদনের ফাইল থেকে ১৪ খন্ডে বই প্রকাশ করার কাজ চলছে। ১৯৪৭ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে করা গোয়েন্দা সংস্থার ৪৭টি ফাইল উদ্ধার করা হয়েছে। এই ফাইলগুলোর তথ্যাবলি বই আকারে প্রকাশ করা হবে।

তৃণমূলের নেতাদের শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ করা মানে শুধু নিজের উন্নয়ন করা নয়, দেশ ও দশের জন্য কাজ করাই এই দলের মূল উদ্দেশ্য।

যা বললেন তৃণমূল নেতারা : রাজনীতিবিদদেরকেই আগামীতে মনোনয়ন দিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ করেছেন দলের তৃণমূল নেতারা। তারা প্রতিশ্রুতিতে বলেন, ‘আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করব।’

গণভবনে আহ্বান করায় দলীয় সভাপতিকে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানান নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার গন্ডা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সনজু মিয়া। তিনি বলেন, ‘আপনার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলার সুযোগ পেয়েছি, আওয়ামী লীগ করে আমার আর কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই।’

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান মানিক সরদার বলেন, ‘আমরা তৃণমূল নেতারা এক ও অভিন্ন। নৌকার বিজয়ের জন্য আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাব।’ একই সুরে কথা বললেন বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার বেতাগা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান স্বপন দাশ, ‘ওয়ান ইলেভেনের সময় আমরা তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। আমরা তৃণমূলে আজও ঐক্যবদ্ধ। আপনি যাকে নৌকা মার্কা দেবেন তাকে জয়ী করার জন্য আমরা কাজ করব।’

কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের দবির উদ্দিন আহমেদেরও দাবি, তৃণমূলের মানুষ ঐক্যবদ্ধ। বর্তমান সরকারের সময়ে কুষ্টিয়ায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। দলের সভাপতি নৌকা দিয়ে যে প্রার্থীকে নির্বাচনী ময়দানে পাঠাবেন, তাকেই জয়ী করতে আত্মবিশ্বাসী তারা।

লালমনিরহাট জেলার তিন বিঘা করিডোর এলাকার ধরগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বলেন, ‘আপনি আমাদের ভাগ্যের পরিবর্তন করেছেন। আপনার অবদান, আপনার ঋণ আমরা কোনো দিন শোধ করতে পারব না। আমরা হাতে-হাত ও কাঁধে-কাঁধ মিলিয়ে নৌকাকে বিজয়ী করতে কাজ করব।’

তৃতীয় পর্বের বিশেষ এ বর্ধিত সভায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর ও খুলনা বিভাগের ইউনিয়ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা অংশ নিয়েছেন। এর আগে চট্টগ্রাম, রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের ইউনিয়ন পর্যায়ের প্রতিনিধিদের নিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বর্ধিত সভা হয়। আরো আগে গত ২৩ জুন জেলা-উপজেলা, মহানগর, পৌরসভার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, দলীয় সংসদ সদস্য, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলার চেয়ারম্যানদের নিয়ে প্রথম পর্যায়ের বর্ধিত সভা হয়। সেখানে আগামী নির্বাচন নিয়ে নানা ধরনের দিকনির্দেশনা দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

"