ট্র্যাজেডি ভোলার মিশনে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

প্রকাশ : ১৫ জুন ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

রাশিয়া বিশ্বকাপে আগামীকাল শনিবার সন্ধ্যায় মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা। আর রোববার দিবাগত মধ্যরাতে মাঠে নামবে ব্রাজিল। ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ নবাগত আইসল্যান্ড। আর ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচে ব্রাজিল খেলবে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে।

২০১৪ বিশ্বকাপ ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা উভয়ের জন্য শোকাবহ ছিল। বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দল ব্রাজিলকে সেমিফাইনালে ৭-১ গোলে উড়িয়ে দেয় জার্মানি। এরপর সেই জার্মানি ফাইনালে ১-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারায়। নিঃশ্বাস দূরত্বে থাকা শিরোপা হাতছাড়া করে মেসি-ডি মারিয়াদের আর্জেন্টিনা। ২০১৪ বিশ্বকাপের ট্র্যাজেডির শাপমোচন করতে রাশিয়ায় এসেছে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। তাদের সেই মিশন শুরু হচ্ছে শনি ও রোববার।

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে এসেছে আইসল্যান্ড। ২০১৬ ইউরোতে প্রথমবার অংশ নিয়েই বাজিমাত করেছিল তারা। গ্রুপ পর্বে রানার্স-আপ হয়ে শেষ ষোলোতে যায়। এরপর ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেয়। রাশিয়া বিশ্বকাপেও তারা তেমন কিছু করার প্রত্যয় নিয়ে এসেছে। সে যাত্রায় প্রথমেই তাদের সামনে পড়েছে আর্জেন্টিনা। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই দলের বিপক্ষে জয় পাওয়াটা তাদের জন্য সহজ কাজ হবে না। লিওনেল মেসি-ডি মারিয়ারা হয়তো অনুমেয় জয়টিই তুলে নিতে পারবে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে। অবশ্য বিশ্বকাপে জায়গা করে নেওয়াটা তাদের জন্য সহজ ছিল না। এক সময় বাদ পড়ার শঙ্কাও জেগেছিল আর্জেন্টিনার। কিন্তু শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরের বিপক্ষে জয় তুলে নিয়ে বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয় আলবিসিলেস্তারা। এই ম্যাচেও ত্রাতার ভূমিকায় ছিলেন লিওনেল মেসি। তিনি হ্যাটট্রিক করে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপের টিকিট পাইয়ে দেন। রাশিয়া বিশ্বকাপেও মেসিকে ত্রাতায় ভূমিকায় দেখতে চায় আর্জেন্টিনার সমর্থকরা। তিন ফাইনালে (বিশ্বকাপ ও কোপা আমেরিকা) উঠে কান্নাকে সঙ্গী করে ফিরে আসা মেসির হাতে তারা চায় অন্তত একটি বিশ্বকাপ শিরোপা উঠুক।

এদিকে নেইমার, জেসুস, ফিরমিনো, কুতিনহোর সমন্বয়ে ব্রাজিল এবারের বিশ্বকাপে দুর্দান্ত দল। বাছাই পর্বে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকে বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে তারা। পিএসজির হয়ে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়া নেইমার ফিরে এসেছেন দারুণভাবে। বিশ্বকাপের আগে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নেমে দুইটিতেই পেয়েছেন গোলের দেখা। তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে পারফরম্যান্স করেছেন জেসুস-কুতিনহোরা। তারা নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলতে পারলে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেতে খুব বেশি বেগ পেতে হবে না। এই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের মিশনে এগিয়ে যাবে ব্রাজিল তেমনটাই প্রত্যশা সেলেকাও ভক্ত-সমর্থকদের।

"