দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিয়ে কানাডায় চার দিনের সফর শেষে দেশে ফিরেছেন। টরন্টোর পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কানাডার স্থানীয় সময় গত সোমবার বেলা ২টা ৫০ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশে রওনা হন তিনি।

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান কানাডায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার মিজানুর রহমান ও কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক জনাথন সুভে। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী এমিরেটাস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে) দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান।

পাঁচ ঘণ্টা যাত্রাবিরতির পর এমিরেটাসের অপর একটি ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সময় বিকেল পৌনে ৫টায় দেশের উদ্দেশে দুবাই ত্যাগ করবেন। প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ফ্লাইট গতকালই বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দিতে গত শুক্রবার দুপুরে কুইবেকে পৌঁছান শেখ হাসিনা। কানাডা ছাড়া জি-সেভেনের বাকি ছয় সদস্য রাষ্ট্র হলোÑ ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্ব অর্থনীতির সাত পরাশক্তির জোট জি-সেভেনের সম্মেলনের পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির বিষয়ে আলোচনার জন্য জোটের বাইরে থেকে বিভিন্ন দেশকে আলাদা বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। একেই বলা হয় জি-সেভেন আউটরিচ মিটিং।

এবার এই সম্মেলনে অংশ নিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও কয়েকটি দেশের সরকারপ্রধান ও কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে কানাডা সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগে ২০০১ সালে ইতালিতে এবং ২০১৬ সালে জাপানে জি-সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে যোগ দেন।

"