বেড়েছে পরিবহন ভাড়া

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তীব্র যানজট, দুর্ভোগ

প্রকাশ : ১৩ মে ২০১৮, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

ফেনীর ফতেহপুর রেলক্রসিংয়ের ওপর উড়াল সেতুর নির্মাণ কাজ চলার কারণে সৃষ্ট যানজট চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড পর্যন্ত প্রভাব ফেলেছে। গত বুধবার রাতে শুরু হওয়া এই যানজট গতকাল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুন্ড পর্যন্ত এসে পড়েছে। ঢাকামুখী গাড়ির গতি নেই বললেই চলে। ফলে এ রুটে চলাচলকারীদের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। বুধবার রাতে মহাসড়কের ফেনীর ফতেহপুরে নির্মাণাধীন উড়াল সেতুকে ঘিরে এ যানজট শুরু হয়। তা বিস্তৃত হয় ঢাকা অভিমুখী কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম এবং চট্টগ্রাম অভিমুখী সীতাকুন্ড পর্যন্ত। শনিবারও উভয় দিকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয় এ যানজট। স্বাভাবিকভাবে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যেতে ৬ ঘণ্টা সময় লাগলেও যানজটের কারণে লাগছে কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ ঘণ্টা।

মিরসরাই সদরের বাসিন্দা মামুন চৌধুরী জানান, মিরসরাই এলাকায় শনিবার সারা দিনও ঢাকামুখী গাড়ি মহাসড়কে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেছেন। চট্টগ্রামমুখী মহাসড়কে শনিবার দুপুরের পর থেকে তেমন যানজট ছিল না। এদিকে যানজটের কারণে বেড়েছে যানবাহন ভাড়াও।

যানজটের বিরূপ প্রভাব পড়েছে আমদানি-রফতানি পণ্য পরিবহনের খরচে। দু-তিন দিনের ব্যবধানেই পরিবহন খরচ প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে গেছে। আন্তঃজেলা মালামাল পরিবহন সংস্থা ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী জাফর আহমেদ বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক বা কাভার্ডভ্যানে আমদানি-রফতানি পণ্য পরিবহন ভাড়া ২০-২১ হাজার টাকা ছিল। তখন ৯-১০ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বন্দরের গন্তব্যে পণ্য পৌঁছানো যেত। এখন পরিবহন সময় বেশি লাগার কারণে ট্রাক ভাড়া বেড়েছে।

চৌধুরীহাট হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ সোহেল সরকার বলেন, ফেনীর রেলগেট এলাকায় উন্নয়ন কাজের কারণে যানজট দেখা দেয়। সেখানে সরু রাস্তার কারণে কিছুক্ষণ ঢাকামুখী ও কিছুক্ষণ চট্টগ্রামমুখী গাড়ি চলাচল করায় যানজট সৃষ্টি হয়। যানজটের আটকে পড়া গাড়ি ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে মহাসড়কের পুলিশ কাজ করেছে।

কুমিল্লা অঞ্চলের হাইওয়ে পুলিশ সুপার মো. নজরুল ইসলাম জানান, ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাস নির্মাণ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত এই যানজট থাকবে। এছাড়া রেল ওভারপাসে প্রতিদিন ৪৪টি ট্রেন পারাপার করতে মহাসড়ক বন্ধ রাখা হয়, যে কারণে যানজট তৈরি হচ্ছে।

 

"