সড়কে ঝরল ৯ প্রাণ

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় বাসের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষে একই পরিবারের দুজনসহ ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া মৌলভীবাজারের রাজনগরে একজন, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে একজন, ফরিদপুরের মধুখালীতে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের তারাকান্দায় বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে বাবা-ছেলেসহ এক অটোরিকশার ছয় আরোহী নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার কাকনী বাসস্ট্যান্ড এলাকার শেরপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক শহীদুর রহমান জানান। নিহতরা হলেন হালুয়াঘাট উপজেলার নাগ্রলা গ্রামের মো. আয়ুব আলী, তার ছেলে করিম মিয়া, ভগ্নিপতি ছলিম উদ্দিন (৩৫), অটোরিকশাচালক একই উপজেলার বাহির শিমুল গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে সোনা মিয়া, যাত্রী নাজিম উদ্দিন (২৮) ও মাজহারুল ইসলাম (১৭)। হতাহত সবাই অটোরিকশার যাত্রী বলে ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে।

শহীদুর সাংবাদিকদের বলেন, ময়মনসিংহ থেকে যাত্রী নিয়ে অটোরিকশাটি ফুলপুর উপজেলার দিকে যাচ্ছিল। পথে বিপরীত দিক থেকে আসা ঢাকাগামী ইমাম পরিবরহনের একটি বাস অটোরিকশাটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ছয়জনের মৃত্যু হয়।

বাসটিকে পুলিশ আটক করলেও চালক ও সহকারী পালিয়ে যায়।

মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় একটি প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে একজন নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন গাড়িচালকসহ আরো তিনজন। শুক্রবার সকালে উপজেলার উওরভাগ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে রাজনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক জানান। নিহত হাবিবুর রহমান জুয়েলের (৪৫) বাড়ি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার বেলকোনা এলাকায়। আহত হাবিবুরের চাচাত ভাই ইমরান আহমদ (৩৩), তাজ উদ্দিন (৪৫) ও গাড়িচালক কাঞ্চন মিয়াকে (৩৫) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের বাড়িও বেলকোনা এলাকায়।

ওসি শ্যামল বলেন, সকালে ইমরান বিদেশ থেকে দেশে ফেরেন। তাকে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নিয়ে একটি প্রাইভেট কারে বাড়ি ফিরছিলেন জুয়েল। পথে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে গাড়িটি একটি গাছের সঙ্গে লেগে সবাই গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক জুয়েলকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় বাস উল্টে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৩০ জন। নিহত রেজাউল ইসলাম (৬৫) জেলার মহেশপুর উপজেলার নলপাতুয়া গ্রামের গরিবউল্লাহর ছেলে।

কোটচাঁদপুর থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা জানান, শুক্রবার শাপলা পরিবহনের একটি বাস চুয়াডাঙ্গা থেকে যশোর যাচ্ছিল। বেলা দেড়টার দিকে নওদাগাঁও ও কাশিপুরের মাঝামাঝি পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারায়। এ সময় গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে রাস্তার পাশের খাদে উল্টে গেলে রেজাউল ঘটনাস্থলেই মারা যান। আর আহত হন আরো ৩০ জন।

এলাকাবাসী, ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ও পুলিশ গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ১৫ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। অন্য ১৫ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে ওসি বিপ্লব বলেন, তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা সংকটাপন্ন।

মধুখালী (ফরিদপুর) : মধুখালী উপজেলার আলতু খান জুট মিলের এক শ্রমিক ট্রাকচাপায় নিহত হয়েছেন। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শ্রমিক মো. আতিয়ার সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের মৃত হালিম মোল্যার ছেলে। মধুখালী ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধারের পর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। আতিয়ার সকালের শিফটে জুট মিলে দায়িত্ব পালনের উদ্দেশে পৌর সদরের বনমালিদিয়া গ্রামের ভাড়াটিয়া বাসা থেকে বাইসাইকেলে জুট মিলে যাচ্ছিলেন।

মধুখালী থানার এসআই পলাশ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

"