এবার বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে হাত হারালেন পরিবহন শ্রমিক

প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
ama ami

কলেজছাত্রের পর এবার বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে শরীর থেকে হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল হৃদয় নামের এক পরিবহন শ্রমিকের। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বেদগ্রাম নামক স্থানে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। হৃদয়কে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের চালকের সহকারী (হেলপার) ছিলেন। হৃদয় উপজেলার কাড়ারগাতী গ্রামের রবিউল মিনার ছেলে। টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের যাত্রী রাহিমা মনি জানান, পিরোজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের বাসের একেবারে পেছনের ডান পাশের আসনে বসেছিলেন হৃদয়। বাসটি বেদগ্রাম পৌঁছলে উল্টোদিক থেকে আসা একটি ট্রাক পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সময় বাস ও ট্রাকটির পেছনের অংশে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই হৃদয়ের বাহু থেকে ডান হাতটি বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে সংকটাপন্ন অবস্থায় তাকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢামেকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

ওই যাত্রী অভিযোগ করে বলেন, ট্রাকটি বেপরোয়া গতিতে বাসটিকে অতিক্রম করার চেষ্টা করছিল। এতেই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দুর্ঘটনার পর ট্রাকটি পালিয়ে গেছে জানিয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ট্রাকটি আটকের চেষ্টা চলছে।

এর আগে গত ১৩ এপ্রিল রাজধানীর কারওয়ানবাজারে দুই বাসের রেষারেষিতে হাত হারান তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেন। পরে গত সোমবার তিনি ঢামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

"