ব্রেকিং নিউজ

মানবতাবিরোধী অপরাধ

যশোরের ৫ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় যশোরের পাঁচজনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। গতকাল সোমবার ধানমন্ডি কার্যালয়ে তদন্ত সংস্থার সমন্বয়ক আবদুল হান্নান খান এক সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। ওই পাঁচজনের বিরুদ্ধে হত্যা, আটক, শারীরিক নির্যাতনসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

পাঁচ আসামির মধ্যে আমজাদ হোসেন মোল্লা কারাগারে। তার বাড়ি যশোরের বাঘারপাড়া থানার প্রেমচারা গ্রামে। মুক্তিযুদ্ধের সময় মুসলিম লীগে জড়িত থাকলেও বর্তমানে তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। বাকি চারজন পলাতক। গ্রেফতারের স্বার্থে পলাতকদের নাম প্রকাশ করেনি তদন্ত সংস্থা।

আসামিদের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ২৬ এপ্রিল তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়। প্রায় এক বছর পর চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হলো। মামলাটি তদন্ত করেছেন ট্রাইব্যুনালের তদন্ত কর্মকর্তা মো. আবদুর রাজ্জাক খান।

ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার এটি ৬৩তম প্রতিবেদন। আসামিদের বিরুদ্ধে যশোরের বাঘারপাড়া থানার ২ নম্বর বান্দবিলা ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপুর, পাইদঘাট ও প্রেমচারা গ্রামের বিভিন্ন স্থানে আটক, শারীরিক নির্যাতন ও ছয়জনকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে।

ছয় খণ্ডের প্রতিবেদনের প্রতিটির পৃষ্ঠা ৬০ করে। দালিলিক প্রমাণ হিসেবে যশোর জেলা প্রশাসকের পাঠানো বাঘারপাড়া উপজেলার রাজাকারদের তালিকা যুক্ত করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, আমজাদ মোল্লা মুক্তিযুদ্ধের সময় মুসলিম লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পরে তিনি বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন। আওয়ামী লীগ ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর দলবল নিয়ে তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দেন।

 

"