সিলেটে নিখোঁজের ৩ দিন পর কিশোরের লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

সিলেট প্রতিনিধি

সিলেট নগরের ঘাসিটুলা এলাকা থেকে এক কিশোরের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত কিশোর সোহাগ মিয়া তার মাকে নিয়ে নগরের মজুমদার পাড়ার ময়না মিয়ার কলোনিতে ভাড়া থাকত। সে বগুড়ার ওলিরবাজার ঝুপবাড়ি গ্রামের আশরাফ মিয়ার ছেলে। গতকাল সোমবার তার লাশটি উদ্ধার করে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, ঘাসিটুলা এলাকায় এলজিইআরডি অফিসের পাশে প্লাস্টিকের বস্তার ভেতর থেকে একটি হাত বেরিয়ে থাকতে দেখে এলাকার লোকজন কোতোয়ালি থানা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।

নিহতের মা ফুলবানু বেগম জানান, তিন দিন ধরে তার ছেলে নিখোঁজ ছিল। সে নগরের কাজীরবাজারে মাছের আড়তে দিনমজুরের কাজ করত। তিনি আরো জানান, গত ১৩ এপ্রিল বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর আর ফিরে আসেনি সোহাগ। সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ করেও তাকে পাওয়া যায়নি। সোমবার সকালে স্থানীয় শিশু কিশোররা ক্রিকেট বল কুড়িয়ে আনতে গিয়ে বস্তাবন্দি লাশ দেখতে পেয়ে এলাকার লোকজনকে খবর দেন। পরে তিনি সোহাগের লাশ শনাক্ত করেন।

সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খোকন দাস বলেন, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। দেখে মনে হচ্ছে ৩ থেকে ৪ দিন আগে তাকে কেউ হত্যা করে বস্তাবন্দি করে এখানে ফেলে গেছে। সোহাগের গলা, হাত ও পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার বিভূতি ভূষণ ব্যানার্জ্জী জানান, বস্তাবন্দি লাশের খবর পেয়ে পুলিশ এলে পরিবারের লোকজন সোহাগের লাশ শনাক্ত করে। লাশের গলা, হাতে ও পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এই হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে বলে তিনি জানান।

 

"