নিশামের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর নিউজিল্যান্ডের

প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৯, ১৭:৩৮ | আপডেট : ২৬ জুন ২০১৯, ২০:২৫

অনলাইন ডেস্ক

দলের চরম বিপর্যয়েও জেমস নিশামের অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ে ২৩৭ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়েছে নিউজিল্যান্ড। সেমিফাইনালের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখতে হলে ২৩৮ রান করতে হবে পাকিস্তানকে।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৮৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। ১৩২ রানের অনবদ্য জুটি গড়েন জেমস নিশাম এবং কলিন ডি গ্রান্ড হোম। তাদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটে ২৩৭ রান তুলতে সক্ষম হয় নিউজিল্যান্ড। দলের হয়ে ১১২ বলে সর্বোচ্চ ৯৭ রান করেন নিশাম। ৭১ বলে ৬৪ রান করে আউট হন ডি গ্রান্ড হোম।

চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিউজিল্যান্ড

মোহাম্মদ আমির তার ওভারের প্রথম বলেই গাফটিলকে বোল্ড করে সূচনা করেছিলেন। সেই থেকে শুরু। একের পর উইকেটের পতন। চরম ব্যাটিং বিপর্যয় নিউজিল্যান্ডের। সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করতে নেমে ১২.৩ ওভারে ৪৬ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চাপের মধ্যে পড়ে যায় কিউইরা।

হারলেই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় পাকিস্তানের। আর জিতলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে নিউজিল্যান্ডের। এমন সমীকরণের ম্যাচে বৃষ্টির বাগড়া। বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ের ঘণ্টাখানেক পর খেলা শুরু হয়।

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। প্রথম উইকেট হারায় আমিরের বলে। রান তখন মাত্র ৫।

প্রাথমিক ধকল সামলিয়ে ওঠার আগেই ফের বিপদে পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অন্য ওপেনার কলিন মুনরো।

এরপর চার নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নেমে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে পারেননি রস টেইলর। শাহীন শাহ আফ্রিদির গতির বলে উইকেটকিপার সরফরাজ আহমেদের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফেরেন টেইলর।

দলীয় ৯ ওভারে ৩৮ রানে মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো ও রস টেইলরের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। এরপর টম লাথামকে সাঝঘরে পাঠান শাহীন শাহ আফ্রিদি।

 

পিডিএসও/রি.মা