পরিত্যক্ত ম্যাচের রেকর্ড

প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৯, ২০:০২ | আপডেট : ১১ জুন ২০১৯, ২০:১১

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বকাপের এবারের আসরে বৃষ্টি যেন পিছুই ছাড়ছে না। গত দুই দিনে আকাশের এই দুরবস্থার কারণেই হয়নি কোন ম্যাচের ফলাফল। বৃষ্টি যেন এবারের বিশ্বকাপে সব মাত্রাকেই ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছে তিনটি ম্যাচ। যা কিনা একটি রেকর্ড।

বৃষ্টির কারণে এর আগে কোনো বিশ্বকাপে এতগুলো ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়নি। এর আগে ১৯৯২ ও ২০০৩ আসরে বৃষ্টিতে সমান দুটি করে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল।

১৯৯২ সালের আসরে ভারত-শ্রীলঙ্কার ম্যাচটি প্রথম পরিত্যক্ত হয়। বৃষ্টি শেষ হওয়ার পর সেবার হেলিকপ্টার আনানো হয় মাঠ শুকানোর জন্য। কিন্তু কোনো মতেই আর খেলা মাঠে গড়ানো যায়নি।

দ্বিতীয় পরিত্যক্ত ম্যাচটি হল ইংল্যান্ড-পাকিস্তানের। প্রথম ইনিংসের খেলা ঠিক মতো শেষ হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ ওভার হওয়ার পরই নামে বৃষ্টি। যার ফলে বাকি খেলা আর মাঠে গড়ায়নি। বিশ্বকাপের এবারের আসরটিও সেবারের মতো রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

২০০৩ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলাটি প্রথম পরিত্যক্ত হয়। প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাট করতে পারলেও বাংলাদেশ ব্যাটিং করার আট ওভারের পর নামে বৃষ্টি।

ওই বিশ্বকাপে পরিত্যক্ত হওয়া পরের ম্যাচটি হল পাকিস্তান-জিম্বাবুয়ের। সেদিন ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে থেকেই বৃষ্টি নামতে থাকে। পরে কার্টেল ওভারে খেলা ৩৮ ওভারে নেমে এলেও প্রথম ইনিংসের ১৪তম ওভারে বৃষ্টি নামার পর আর খেলা শুরু করা যায়নি।

আর এবারের বিশ্বকাপে পরিত্যক্ত হওয়া ম্যাচ গুলো হলো : পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ-দক্ষিণ আফ্রিকা এবং বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা।

এছাড়া বিশ্বকাপের অন্যান্য আসরে পরিত্যক্ত হওয়া ম্যাচগুলো হলো-

১৯৯৬ : কেনিয়া-জিম্বাবুয়ে

১৯৯৯ : নিউজিল্যান্ড-জিম্বাবুয়ে

২০১১ : অস্ট্রেলিয়া-শ্রীলঙ্কা

২০১৫ : বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া

পিডিএসও/রি.মা