বিশ্বকাপে বাংলাদেশের তুরুপের তাস হবে দু’জন

প্রকাশ : ০৫ মে ২০১৯, ১৬:০৪ | আপডেট : ০৫ মে ২০১৯, ১৭:৫৯

অনলাইন ডেস্ক

২০১১ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কোচ ছিলেন ইয়ান পন্ট। ফের বিশ্বকাপ দুয়ারে। ঠিক সেই মুহূর্তে পুরনো স্মৃতি রোমন্থন করলেন তিনি। সেই সঙ্গে জানালেন, ২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সাফল্যের চাবিকাঠি যে দুজনের হাতে।

২০১০ সালে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডকে ৪-০ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হারায় বাংলাদেশ। তখন দলের নেতৃত্বে ছিলেন সাকিব আল হাসান। কিছুদিন পরে জিম্বাবুয়েকে সীমিত ওভারের সিরিজে হারায় টাইগাররা। দুই দলকে পরাজিত করে বিশ্বকাপে পা রেখেছিল তারা। বিশ্বমঞ্চে আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস ও শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার স্বপ্ন দেখেছিল সাকিব বাহিনী। তবে শেষ পর্যন্ত তা আলোর মুখ দেখেনি।

সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে নিউজিল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের স্মৃতিচারণ করেন পন্ট। একই সঙ্গে জানিয়ে দেন, এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের তুরুপের তাস হবে সাকিব ও তামিম ইকবাল।

বাংলাদেশের সাবেক কোচের টুইটটি এরকম, ৪-০ ব্যবধানে নিউজিল্যান্ডকে বাংলাওয়াশ এবং ৩-১ ব্যবধানে জিম্বাবুয়েকে সিরিজ হারিয়ে ২০১১ বিশ্বকাপে দারুণ প্রস্তুতি নিয়েছিল বাংলাদেশ। আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এ অভিজ্ঞ দুই ক্রিকেটার সাকিব ও তামিম হবে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের সাফল্যের চাবিকাঠি।

সাকিব ও তামিম দুজনই ২০০৭ থেকে সব বিশ্বকাপে খেলেছেন। ২০০৭, ২০১১ ও ২০১৫ সালে ২১ ম্যাচে ৫৪০ রান নিয়ে বাংলাদেশিদের মধ্যে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের মালিক সাকিব। সর্বোচ্চ ২৩ উইকেটও রয়েছে তারই ঝুলিতে। আর ২১ ইনিংসে তামিমের সংগ্রহ ৪৮৩ রান, যা বাংলাদেশিদের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ ইনিংসে ৫১০ রান মুশফিকুর রহিমের।

পিডিএসও/রি.মা