ভারতকে পেরোতে হবে রানের পাহাড়

প্রকাশ : ১৮ জুন ২০১৭, ১৯:৩৫ | আপডেট : ১৮ জুন ২০১৭, ২২:০৮

অনলাইন ডেস্ক

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির শিরোপা জয়ের অন্তিম লড়াইয়ে ব্যাট হাতে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। গড়েছেন রানের পাহাড়। টানা দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নস ট্রফির শিরোপা জিততে হলে ভারতকে পেরোতে হবে ৩৩৯ রানের পাহাড়।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই অবশ্য বড়সড় ধাক্কা খেতে বসেছিল পাকিস্তান। জাসপ্রিত বুমরাহর করা চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছিলেন ফখর জামান। এর পরই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছিলেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। তবে রিপ্লেতে দেখা যায়, বুমরাহর করা বলটি লাইনের বেশ বাইরে ছিল। ফলে একটি জীবন পেয়ে যান ফখর। সেই সুযোগটা ভালোমতোই কাজে লাগিয়েছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। সাঈদ আনোয়ার ও শোয়েব মালিকের পর পাকিস্তানের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে শতক করার বিরল কীর্তি গড়েছেন চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে। খেলেছেন ১০৬ বলে ১১৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস।

উদ্বোধনী জুটিতেই ১২৮ রান যোগ করে পাকিস্তানকে ভালো অবস্থানে নিয়ে গিয়েছিলেন দুই ওপেনার ফখর জামান ও আজহার আলী। প্রথম উইকেটের দেখা পেতে ভারতকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ২৩তম ওভার পর্যন্ত। ৫৯ রান করে দুর্ভাগ্যবশত রানআউটের ফাঁদে পড়েছেন আজহার। ৩৪তম ওভারে পাকিস্তান পেয়েছে দ্বিতীয় সাফল্য। ১১৪ রান করে হার্দিক পান্ডিয়ার শিকার হয়েছেন ফখর। ততক্ষণে পাকিস্তান ছুঁয়ে ফেলেছে দুইশ রানের মাইলফলক। ৪০তম ওভারে ১২ রান করে ফিরে গেছেন শোয়েব মালিক। শেষপর্যায়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ হাফিজের ৩৭ বলে ৫৭ ও ইমাদ ওয়াসিমের ২৫ রানের ঝড়ো দুটি ইনিংসে ভর করে স্কোরবোর্ডে ৩৩৮ রান জমা করেছে পাকিস্তান।

আজ ফাইনালে টসভাগ্যটা গেছে বিরাট কোহলির পক্ষে। টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি। সেমিফাইনালের দল নিয়েই ফাইনালেও খেলছে ভারত। যার অর্থ, অশ্বিন খেলছেন ভারতের হয়ে। ফাইনালে একটি পরিবর্তন নিয়ে খেলছে পাকিস্তান। মোহাম্মদ আমিরকে ফিরিয়েছে দলটি।

অল এশিয়ান ফাইনালের শিরোপা যেই জিতকু না কেন, লড়াইটা যে ভারতের ব্যাটিং লাইনআপের সঙ্গে পাকিস্তানের পেস অ্যাটাকের হবে, সেটা হয়তো না বললেও চলে।

পিডিএসও/রানা