টেস্টে শীর্ষ ছয়ে ওঠা অসম্ভব নয় : মুশফিক

প্রকাশ : ০৮ মে ২০২০, ১০:৪১

ক্রীড়া প্রতিবেদক

গত সপ্তাহে আইসিসির টেস্ট র‌্যাংকিং দেখে অনেকেরই চক্ষু চড়কগাছ। রেটিং পয়েন্টে পুঁচকে আফগানিস্তানেরও নিচে নেমে গেছে বাংলাদেশ! দুই বছর টেস্ট খেলে আফগানদের রেটিং পয়েন্ট যেখানে ৫৭, সেখানে ২০ বছর খেলে বাংলাদেশের পয়েন্ট মাত্র ৫৫। ওয়ানডেতে যে দেশটি ভারত, ইংল্যান্ডের মতো পরাশক্তিদেরও বলে-কয়ে হারিয়ে দেয়, বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলে, চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেলে, সাদা পোশাকে সেই দলটির অবস্থান কি না নবীন আফগানদেরও নিচে! করছে! বিষয়টি নিশ্চয়ই এ দেশের ক্রিকেটার ও ভক্তদের বিব্রত করেছে। কেউ কেউ হতাশও বটে।

ঠিক এ অবস্থায় আশার বাণী শোনালেন মুশফিকুর রহিম। বললেন, লাল-সবুজের দলে যে সব প্রতিভাবান ক্রিকেটার আছে, তাতে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের পক্ষে সেরা ছয়ে আসা অসম্ভব নয়। গতকাল ফেসবুক পেজে দেওয়া আড্ডায় টাইগারদের মিস্টার ডিপেন্ডেবল এ কথা জানান।

মুশি বলেন, ‘টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছে। এখন অবশ্য বন্ধ আছে। তবে এটা আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। আমার কাছে ব্যক্তিগত অর্জনের চেয়ে দেশের অর্জন সব সময়ই বড়। আমি মনে করি, টেস্টে আমাদের সেরা ছয়ের মধ্যে আসার সামর্থ্য আছে এবং সেটা খুব দ্রুতই শুরু করা উচিত।’

টেস্ট মর্যাদা প্রাপ্তির দুই দশক পেরিয়ে গেলেও আজও ক্রিকেটের কুলীন সংস্করণে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারেনি। এর প্রধান কারণ কম সংখ্যক টেস্ট ম্যাচ খেলা। দ্বিতীয় কারণ হিসেবে বলা যায়, ঘরোয়া ক্রিকেটের মান। দেশে মাঝে-সাঝে জিতলেও বিদেশের মাটিতে অনেক দিন হলো জয়হীন টাইগাররা।

মুশফিকের মতে, টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ ছয়ের মধ্যে আসতে গেলে বিদেশের মাটিতে অবশ্যই ভালো করতে হবে। তবে দেশের মাটিতে জয়ের যে হার, তাতে তাকে সন্তুষ্ট বলেই মনে হলো, ‘টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের কথা যদি বলি, দল হিসেবে আমাদের অনেক কিছু অর্জন করা বাকি আছে। গত ২০ বছর আমরা সেভাবে অর্জন করতে পারিনি। যদিও আমাদের কিছু মেধাবী ক্রিকেটার ছিল। একই সঙ্গে আমি মনে করি, দেশের মাটিতে ম্যাচ জয়ের পরিসংখ্যান ওপরের দিকে যাচ্ছে। আমাদের মূল ফোকাস এখন বিদেশে ভালো করা করা।’

পিডিএসও/তাজ