ধর্মঘট নিয়ে কী বলছে বিসিবি ও মন্ত্রণালয়?

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:০০ | আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০১৯, ১০:৪৩

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জাতীয় ক্রিকেট লিগসহ (এনসিএল) ঘরোয়া ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে নানা অসন্তোষ প্রকাশ করে ধর্মঘট ডেকেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। সংবাদ সম্মেলন করে পেশ করেছেন ১১ দফা দাবি। তাদের দাবি মানা না হলে সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

ক্রিকেটারদের এমন আচরণে বিস্মিত হয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী। গণমাধ্যমের কাছে তিনি দাবি করেছেন, ক্রিকেটাররা তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে বোর্ডের সঙ্গে আগে আলাপ করেননি। বোর্ড নাকি ধর্মঘট না ডাকার আহ্বানও জানিয়েছে। তবে ক্রিকেটাররা চেয়েছেন, তাদের দাবি দাওয়া সংবাদমাধ্যমের সহায়তার বিসিবি তথা সরকারকে জানাতে।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমাদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা এ নিয়ে যোগাযোগ করেননি। আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে বিষয়টি জেনেছি। আমাদের জন্য এখন তাই এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করা কঠিন। তিনি আরো বলেন, আমরা তাদের দাবিগুলো জানলাম। এখন যত দ্রুত সম্ভব তাদের ধর্মঘটের বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করব।

ক্রিকেটাররা এর আগেও বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে বোর্ডের কাছে গেছেন। বোর্ড সাধ্যমতো তাদের দাবি পূরণের চেষ্টা করেছে বলেও উল্লেখ করেন বিসিবির এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ক্রিকেটারদের নতুন এই দাবিগুলোও বোর্ড পর্যায়ে আলাপ করা হবে। তবে বিসিবির প্রধান নির্বাহী ক্রিকেটারদের এই ধর্মঘটকে ‘বিদ্রোহ’ বলতে নারাজ। তার মতে, আমাদের ক্রিকেটাররা বোর্ডেরই অংশ। যে ঘটনাই ঘটুক আলোচনার মধ্য দিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে হবে।

এদিকে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল মনে করেন, ক্রিকেটাররা ধর্মঘটের ডাক দেওয়ার আগে পুরো বিষয়টি বিসিবিকে জানাতে পারতেন। শুরুতে হার্ডলাইনে যাওয়ায় ক্রিকেট দুনিয়ায় দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলে তার অভিমত। তবে ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়ার প্রতি সহানুভূতিশীল প্রতিমন্ত্রীর আশা, সব সমস্যা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান হবে।

পিডিএসও/তাজ