ভুটানের জালে বাংলাদেশের ১ হালি

প্রকাশ : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৩২

অনলাইন ডেস্ক

ভুটানের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। রোববার ঘরের মাঠ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ভুটানকে ৪-১ গোলে পরাজিত করে জেমি ডের দল। স্বাগতিকদের হয়ে জোড়া গোল করেন নাবিব নেওয়াজ জীবন। বিপলু আহমেদ ও রবিউল হাসান একটি করে গোল করেন।

ভুটানের হয়ে এক গোল শোধ দেন দর্জি। দুদলের আরেকটি প্রস্তুতি ম্যাচ রয়েছে। ৩ অক্টোবর একই ভেন্যুতে হবে ওই ম্যাচটি।

আগামী ১০ অক্টোবর ঘরের মাঠে কাতারকে আতিথ্য দেবে বাংলাদেশ। ২০২২ বিশ্বকাপ সামনে রেখে বাছাইপর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-কাতার।

এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচ খেলে জামাল বাহিনী। ম্যাচটি ১-০ গোলে পরাজিত হয়। আফগানদের বিপক্ষে হারের দুঃখ ভুলে কাতারের বিপক্ষে ভালো করতে চায় জেমির দল। সেই লক্ষ্যেই ভুটানের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচের আয়োজন বাফুফের, যার একটিতে কাল জয় পেয়েছে। দ্বিতীয় ম্যাচেও একই প্রত্যাশা দলের। ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচ আয়োজন শুধু কাতার ম্যাচকে উদ্দেশ্য করেই নয়; খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর পাশাপাশি র‌্যাংকিংয়ের উন্নতি ঘটানোও লক্ষ্য। বর্তমানে ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ভুটানের চেয়ে দুই ধাপ পেছনে বাংলাদেশ। ভুটানের বিপক্ষে দুই ম্যাচ জিতে র‌্যাংকিংয়ে এগোতে চান লাল-সবুজরা।

বৃষ্টিভেজা কাদাযুক্ত বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে আজ শুরু থেকে প্রাধান্য বাংলাদেশের। ভুটানকে আক্রমণে আক্রমণে তটস্থ রেখেছে ম্যাচের শুরু থেকে শেষ অবধি। ১২ মিনিটেই এগিয়ে যান স্বাগতিকরা। জামাল ভূঁইয়ার ক্রস থেকে দারুণ এক হেডে দলকে এগিয়ে নেন নাবিব নেওয়াজ জীবন (১-০)। আন্তর্জাতিক ম্যাচে অনেক দিন পর গোল পেলেন এ ফরোয়ার্ড। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করে সমর্থকদের রোষানলে পড়েন জীবন। বোদ্ধারা তাকে দল থেকে বাদের আওয়াজও তোলেন। কিন্তু জীবনের ওপর আস্থা রাখেন গুরু জেমি ডে। কাল দ্বিতীয় গোলটিও আসে জীবনের পা থেকে। ৩৯ মিনিটে ইব্রাহিমের ক্রস থেকে সাইড ভলিতে ভুটানের জালে বল জড়ান জীবন (২-০)। দ্বিগুণ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিশ্রাম থেকে ফিরেই ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত ভুটানের। ৫১ মিনিটে দর্জির গোলে ম্যাচ জমিয়ে তোলে ভুটান (২-১)। ডি বক্সের জটলায় বল পেয়ে সুযোগ সন্ধানী দর্জি গোল করতে এতটুকু ভুল করেননি। গোলের পর ম্যাচে সমতায় ব্যস্ত ভুটান; ব্যবধান বাড়াতে মরিয়া জামালরা। ৭৩ মিনিটে বিপলু আহমেদের গোলের ব্যবধান ৩-১-এ নিয়ে যায় বাংলাদেশ। ৮১ মিনিটে রবিউল হাসানের গোলে (৪-১) ভুটানের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন রবিউল হাসান।

২০১৬ সালে এএফসি এশিয়ান কাপের প্রাক-বাছাইপর্বে ভুটানের কাছে হেরে যায় বাংলাদেশ। ওই এক হারে তিন বছরের জন্য ফিফা-এএফসি সূচিভুক্ত ম্যাচ থেকে বঞ্চিত হন লাল-সবুজরা। দীর্ঘ ১৭ মাস বোতলবন্দি থাকে জাতীয় দল। তবে গত বছর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে ভুটান জুজু কাটিয়ে ওঠে বাংলাদেশ। এক বছর বিরতি দিয়ে কাল আবারও ভুটানকে হারিয়ে নিজেদের শক্তির জানান দেন জামাল, মামুনুলরা। 

পিডিএসও/রি.মা