সরফরাজদের বিরিয়ানি খাওয়া নিষিদ্ধ

প্রকাশ : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১৬

ক্রীড়া ডেস্ক

সরফরাজদের লাইফস্টাইলে পরিবর্তন আনার মিশনে নেমেছেন পাকিস্তানের প্রধান কোচ ও নির্বাচক মিসবাহ-উল-হক। প্রথম দফায় তাদের খাদ্যাভ্যাসে হস্তক্ষেপ করেছেন তিনি। স্কিলের আগে ফিটনেস—এ মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে খেলোয়াড়দের খাদ্যতালিকায় পরিবর্তন এনেছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

চলতি ঘরোয়া লিগ কায়েদ-ই-আজমের দলে এবং জাতীয় ক্যাম্পে থাকা খেলোয়াড়দের জন্য বিরিয়ানি পুরোপুরি নিষিদ্ধ করেছেন মিসবাহ। পাশাপাশি তারা কী কী খেতে পারবেন, সেই নির্দেশনাও দিয়েছেন।

লিগের ম্যাচে ও লাহোরে জাতীয় ক্যাম্পের ক্রিকেটারদের খাদ্যতালিকায় কম তেলযুক্ত খাবার অন্তর্ভুক্ত করেছেন মিসবাহ। সেইসঙ্গে খেলোয়াড়দের ডায়েটের জন্য আলাদা মেন্যু নির্ধারণ করে দিয়েছেন মিস্টার টুকটুক।

কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে খেলোয়াড়দের জন্য মুরগি জাতীয় সব খাবারের সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। এর বদলে মসুর ডাল, চাল, বারবিকিউ, পাস্তাজাতীয় খাবার খেতে বলেছেন নতুন কোচ। একইসঙ্গে খেলোয়ারদের জন্য প্রচুর পরিমাণে ফল সরবরাহ করতে ক্রিকেট বোর্ডকে আহ্বান জানিয়েছেন।

খেলোয়াড়দের ফিটনেস ঠিক রাখতে প্রতিদিন গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে কসরত করাচ্ছেন মিসবাহ। তাকে এ কাজে সহায়তা করছেন ফিল্ডিং কোচ গ্র্যান্ট ব্র্যাডবার্ন।

শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজের জন্য ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে ট্রেনিং ক্যাম্প শুরু করবে পাকিস্তান। ইতোমধ্যে ২০ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে পিসিবি। দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদসহ ছয় ক্রিকেটারকে ক্যাম্পের বদলে নিজেদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে বলেছেন মিসবাহ।

পিডিএসও/হেলাল