কোহলির ক্ষমতা কমে গেল

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৯, ১১:২৩

অনলাইন ডেস্ক

অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে ভারতীয় বোর্ড কোচ বাছাই ঘিরে বেশ কয়েকটা কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ যার মধ্যে অন্যতম হলো কোচ নির্বাচনে ক্যাপ্টেনের মতামতকে গুরুত্ব না দেওয়া৷ শাস্ত্রীর ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার পেছনে বিরাট কোহলির সক্রিয় হাত ছিল৷ মূলত কোহলি চেয়েছিলেন বলেই শাস্ত্রী দায়িত্ব পেয়ে যান৷ তবে এবার আর কোচ নির্বাচনে ক্যাপ্টেন কোহলির মতামত গুরুত্ব পাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয় বোর্ডের পক্ষ থেকে৷
 
শচীন, সৌরভ ও লক্ষ্মণ ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটি থেকে সরে এসেছেন৷ পরিবর্তে কপিল দেবের নেতৃত্বে অ্যাড হক কমিটির কাঁধে ভারতের মহিলা দলের কোচ নির্বাচনের দায়িত্ব পড়ে৷ এবার স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন থাকলেও কপিলরাই বেছে নিতে পারেন কোহলিদের নতুন কোচ৷ এক্ষেত্রে কপিলের মতো ব্যক্তিত্ব নিজের কাজের জন্য বিরাটের মতামত নিতে রাজি হবেন না বলেই ধারণা ক্রিকেটমহলের৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্তা স্পষ্ট জানান, কপিলদের হাতেই কোচ নির্বাচনের দায়িত্ব পড়তে চলেছে এবং তাদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হিসাবে গণ্য হবে৷ কোচ বাছাইয়ে এবার ক্যাপ্টেনের কোনো ভূমিকা থাকছে না৷

অর্থাৎ প্রকারান্তরে বিরাটের ডানা ছেঁটে দিলো বিসিসিআই৷ শাস্ত্রীকে নিয়ে অসন্তোষের বাতাবরণ ভারতীয় ক্রিকেটমহলের একাংশে স্পষ্ট৷ ফলে বিরাটের ভোটে তার চুক্তি বাড়িয়ে নেওয়ার সম্ভাবনা ছিল বিস্তর৷ এর আগে সাপোর্ট স্টাফ নির্বাচনে হেড কোচের যে কোনো ভূমিকা থাকবে না, সে বিষয়টিও স্পষ্ট করে দিয়েছে বোর্ড৷ বিসিসিআই চাইছে ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং কোচ বেছে নিক জাতীয় নির্বাচক কমিটি৷ সূত্র : কলকাতা ২৪ 

পিডিএসও/হেলাল