একপেশে লড়াইয়ে জিতলো ভারত

প্রকাশ | ১৭ জুন ২০১৯, ০৮:১৫ | আপডেট: ১৭ জুন ২০১৯, ০৯:৫২

অনলাইন ডেস্ক

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। ম্যাচের আগে মাঠের বাইরে টেলিভিশনে বিজ্ঞাপনে কিংবা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যে উত্তাপ ছড়িয়েছে ভক্তরা মাঠে সেই উত্তাপের ছিটেফোঁটা লক্ষ্য করা যায়নি। একপেশে লড়াইয়ে পাকিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। বিশ্বকাপে রোববার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে বৃষ্টি আইনে ৮৯ রানে জয় পেয়েছে বিরাট কোহলির দল।

চার ম্যাচ খেলে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ভারত এখন পয়েন্ট টেবিলে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়া ছাড়া বাকি চারটিতেই ভারত জয় পেয়েছে। অন্যদিকে, পাঁচ ম্যাচ খেলে তিন পয়েন্ট নিয়ে নবম অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান। পাঁচ ম্যাচের মধ্যে একটিতে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। আর একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।

এদিন পাকিস্তানকে জয়ের জন্য ৩৩৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দেয় ভারত। কিন্তু ৩৫ ওভার খেলা হওয়ার পর বৃষ্টি নামে। এ কারণে বেশ কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকে। তখন পাকিস্তানের স্কোর ছিল ৬ উইকেটে ১৬৬ রান। বৃষ্টি থামলে পাকিস্তানের সামনে নতুন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়া হয়। ৪০ ওভারে জয়ের জন্য পাকিস্তানের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৩০২ রান। অর্থাৎ, জয়ের জন্য পাকিস্তানের দরকার পড়ে ৩০ বলে ১৩৬ রান। শেষমেশ ৪০ ওভারে ৬ উইকেটে ২১২ রান সংগ্রহ করতে পারে পাকিস্তান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬২ রান করেন ফখর জামান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন বাবর আজম। ৩৯ বলে ৪৬ রান করে অপরাজিত থাকেন ইমাদ ওয়াসিম। ১৪ বলে ২০ রান করে অপরাজিত থাকেন শাদাব খান। ভারতের বোলারদের মধ্যে বিজয় শঙ্কর ২টি, হার্দিক পান্ডিয়া ২টি ও কুলদীপ যাদব ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

পাকিস্তান ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ওপেনার ইমাম-উল-হককে হারালেও ফখর জামান ও বাবর আজম দলকে পথেই রেখেছিলেন। কিন্তু ২৪তম ওভারে কুলদীপের বলে বোল্ড হন বাবর। ২৬তম ওভারে ফখর জামানকেও ফিরিয়ে দেন কুলদীপ। ২৭তম ওভারে পরপর দুই বলে মোহাম্মদ হাফিজ ও শোয়েব মালিককে ফেরান হার্দিক পান্ডিয়া। এখানেই শেষ হয়ে যায় পাকিস্তানের জয়ের স্বপ্ন। অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ টিকে থাকার চেষ্টা করলেও ৩৫তম ওভারে তিনি আউট হয়ে যান। ৩০ বল খেলে ১২ রান করেন সরফরাজ।

এর আগে রোহিত শর্মার দুর্দান্ত সেঞ্চুরি, বিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুলের হাফ সেঞ্চুরি এবং হার্দিক পান্ডিয়ার ঝড়ো ইনিংসের উপর ভর করে পাকিস্তানকে বিশাল লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দেয় ভারত। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৩৬ রান সংগ্রহ করে বিরাট কোহলির দল।

ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা ১১৩ বলে ১৪টি চার ও তিনটি ছক্কার সাহায্যে ১৪০ রান করেন। এবারের বিশ্বকাপে রোহিতের এটি দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। আর ওয়ানডেতে এটি তার ২৪তম সেঞ্চুরি। দুর্দান্ত এই সেঞ্চুরির সুবাদে ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারও পেয়েছেন রোহিত।

অধিনায়ক বিরাট কোহলি ৬৫ বলে ৭৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৫৭ রান করেন ওপেনার লোকেশ রাহুল। ১৯ বলে ২৬ রান করেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। পাকিস্তানের বোলারদের মধ্যে মোহাম্মদ আমির ৩টি, হাসান আলী ১টি ও ওয়াহাব রিয়াজ ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

ফল : বৃষ্টি আইনে ৮৯ রানে জয়ী ভারত।

ভারত ইনিংস : ৩৩৬/৫ (৫০ ওভার)

(লোকেশ রাহুল ৫৭, রোহিত শর্মা ১৪০, বিরাট কোহলি ৭৭, হার্দিক পান্ডিয়া ২৬, মহেন্দ্র সিং ধোনি ১, বিজয় শঙ্কর ১৫*, কেদার যাদব ৯*; মোহাম্মদ আমির ৩/৪৭, হাসান আলী ১/৮৪, ওয়াহাব রিয়াজ ১/৭১, ইমাদ ওয়াসিম ০/৪৯, শাদাব খান ০/৬১, শোয়েব মালিক ০/১১, মোহাম্মদ হাফিজ ০/১১)।

পাকিস্তান ইনিংস : ২১২/৬ (৪০ ওভার, টার্গেট: ৩০২)

(ইমাম-উল-হক ৭, ফখর জামান ৬২, বাবর আজম ৪৮, মোহাম্মদ হাফিজ ৯, সরফরাজ আহমেদ ১২, শোয়েব মালিক ০, ইমাদ ওয়াসিম ৪৬*, শাদাব খান ২০*; ভুবনেশ্বর কুমার ০/৮, জাসপ্রীত বুমরা ০/৫২, বিজয় শঙ্কর ২/২২, হার্দিক পান্ডিয়া ২/৪৪, কুলদীপ যাদব ২/৩২, যুজবেন্দ্র চাহাল ০/৫৩)।

ম্যাচ সেরা : রোহিত শর্মা (ভারত)।

পিডিএসও/হেলাল