উইন্ডিজকে অল্পতেই বেঁধে ফেললো টাইগাররা

প্রকাশ | ১৩ মে ২০১৯, ১৬:২১ | আপডেট: ১৩ মে ২০১৯, ১৯:৫১

অনলাইন ডেস্ক

দুই ম্যাচ জিতে এরই মধ্যে ফাইনালে উঠে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বৃহস্পতিবার আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষের ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে না গেলে হয়তো সেদিনই বাংলাদেশের ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যেতো। যাই হোক আজ বাংলাদেশের সামনে সুযোগ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আবার হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ফাইনাল নিশ্চিত করার। সেজন্য টাইগারদের সামনে ২৪৮ রানের লক্ষ্য রেখেছে ক্যারিবীয়রা।

এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৪৭ রান সংগ্রহ করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৭ রান করেছেন শাই হোপ। দীর্ঘ ৩ ম্যাচ পর বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন অংকের ঘরে না গিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন এই ওপেনার। অধিনায়ক জেসন হোল্ডার করেছেন ৬২ রান। এই দুইজনের ব্যাটেই মূলত মোটামুটি লড়াইর পুঁজি পেয়েছে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ।

এদিকে বোলিংয়ে দারুণ সাফল্য পেয়েছেন মুস্তাফিজ। সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। মাশরাফি নিয়েছেন ৩ উইকেট। অভিষিক্ত রাহী উইকেট শূণ্য থাকলেও সাকিব ও মেহেদী মিরাজ ১টি করে উইকেট নিয়েছেন। 

ফিজের জোড়া আঘাতে বিপর্যস্ত উইন্ডিজ

ঝড়ো ব্যাটিং শুরু করা উইন্ডিজকেই চেপে ধরেছে বাংলাদেশ। ওপেনার সুনীল আমব্রিসকে প্রথম আউট করেন মাশরাফি মর্তুজা। দারুণ এক ক্যাচ নেন সৌম্য সরকার। পরে মেহেদি মিরাজ ফেরান ড্যারেন ব্রাভোকে। এরপর মুস্তাফিজ তার দ্বিতীয় ওভারে এসে ফেরান রোস্টন চেজকে। চতুর্থ ওভারে তুলে নেন জোনাথন কার্টারকে।

এবার মিরাজের আঘাত

আমব্রিসকে আউট করে উইন্ডিজ শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দারুণ ক্যাচ ধরেন সৌম্য সরকার। পরে মেহেদি মিরাজ ক্যাচ মিস করেন ড্যারেন ব্রাভোর। পরে তাকেই ফেরান তিনি।

ঝড়ো শুরু করা আমব্রিস ১৯ বলে ২৩ করে ফিরে যান। স্লিপে সৌম্যর হাতে ক্যাচ দেন তিনি। পরে ব্রাভো ফেরেন ৬ রান করে। ক্রিজে আছেন শাই হোপ। তার সঙ্গী রোস্টন চেজ।

প্রথম আঘাত মাশরাফির

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ঝড়ো শুরু করেন দুই উইন্ডিজ ওপেনার শাই হোপ এবং সুনীল আমব্রিস। এরপর উইন্ডিজ শিবিরে আঘাত হানেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা আমব্রিসকে ফেরান তিনি। দারুণ ক্যাচ ধরেন সৌম্য সরকার। 

ঝড়ো শুরু করা আমব্রিস ১৯ বলে ২৩ করে ফিরে গেছেন। স্লিপে সৌম্যর হাতে ক্যাচ দেন তিনি। ক্রিজে আছেন শাই হোপ এবং ড্যারেন ব্রাভো।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, সাব্বির রহমান, মেহেদি মিরাজ, মাশরাফি মর্তুজা, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: সুনীল আমব্রিস, শাই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ, জোনাথন কার্টার, জেসন হোল্ডার, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, আর্সলি নার্স, কেমার রোচ, শেলডম কটরেল, রেমন রেইফার।  

পিডিএসও/রি.মা