বিশ্বকাপের পর অবসর নেবেন তারা

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ১৩:৫৬

ক্রীড়া ডেস্ক

দুয়ারে বিশ্বকাপ। বাকি নেই খুব বেশি দিন। এই আসরের পর অনেক তারকা খেলোয়াড়ই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর ঘোষণা দিয়েছেন। একনজরে দেখে নেওয়া যাক তেমনই কয়েকজন খেলোয়াড়ের নাম যারা এরইমধ্যে অবসরের ঘোষণা দিয়ে রেখেছেন ।

ডেল স্টেইন (দক্ষিণ আফ্রিকা) : বেশ কিছুদিন ধরে কাঁধের চোট তার পিছু ছাড়ছে না। সমস্যাটা না থাকলে নিঃসন্দেহে তিনি থাকতেন বিশ্বের সবচেয়ে গতিসম্পন্ন ও ভীতিকর বোলারদের একজন। আসন্ন বিশ্বকাপের আগে এখনো পুরোপুরি ফিট নন স্টেইন। তারপরও প্রোটিয়াদের আশা ভরসার প্রতীকদের একজন হবেন তিনি। গত বছর জুলাইতে ঘোষণা দেন বিশ্বকাপের পর অবসর নেবেন তিনি।

ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) : গত ফেব্রুয়ারিতে ওয়ানডে ক্রিকেটে ফিরেন ক্রিস গেইল। কিছুদিন আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে তিনি ঘোষণা দেন বিশ্বকাপ হবে তার শেষ ওয়ানডে টুর্নামেন্ট। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি সেঞ্চুরি এবং দুই হাফ সেঞ্চুরিতে চার ইনিংসে ৪২৪ রান করেন তিনি। এমন অসাধারণ পারফরমেন্সের পরই আলোচনায় আসে কেন তিনি অবসর নিচ্ছেন।

জেপি ডুমিনি (দক্ষিণ আফ্রিকা) : বিশ্বকাপের পর আর এক দিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে দেখা যাবে না জেপি ডুমিনিকে। দক্ষিণ আফ্রিকার এই অলরাউন্ডার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। ইনজুরির কারণে বেশ কয়েক মাস মাঠের বাইরে থাকার পর গত মার্চে ঘোষণা দেন বিশ্বকাপের পর আর এক দিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবেন না তিনি। কলম্বোতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে ডুমিনির ওয়ানডে অভিষেক ঘটে। পুরো ক্যারিয়ারে বেশ কয়েকবার ইনজুরিতে পড়েছেন তিনি। তা সত্ত্বেও ৫ হাজার ৪৭ রান নিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে দেশের শীর্ষ ১০ স্কোরারের মধ্যে একজন ডুমিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ২০০ ওয়ানডে খেলা তালিকায় অষ্টম স্থানে আছেন তিনি।

ইমরান তাহির (দক্ষিণ আফ্রিকা) : আসন্ন বিশ্বকাপের পর আর ওয়ানডে ক্রিকেট খেলবেন না ইমরান তাহির। তবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি চালিয়ে যেতে চান তিনি। ২০ ওভারের ক্রিকেটেই তিনি সবচেয়ে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন।

শোয়েব মালিক (পাকিস্তান) : দক্ষ স্পিনার, অসাধারণ ফিল্ডার এবং সফল অধিনায়ক শোয়েব মালিক দীর্ঘদিন ধরে পাকিস্তান দলের হয়ে খেলে যাচ্ছেন। নির্ভরযোগ্য এই ক্রিকেটার ১৯৯৯ সালে অভিষেক হওয়ার পর ২৮৩ ওয়ানডে খেলেছেন, ৭ হাজার ৪৮১ রান করেছেন। ওয়ানডে ক্রিকেটে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারীদের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছেন তিনি। এছাড়া বল হাতে ১৫৬ উইকেট এবং ৯৬ ক্যাচ নিয়েছেন তিনি।

পিডিএসও/তাজ