মাশরাফির জোড়া আঘাত

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৪৩ | আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:৫০

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

মাশরাফির বলে অবশেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওপেনিং ব্যাটসম্যান হোপ ফিরে গেলেন। ব্যক্তিগত ৪৩ রান করেছেন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বর্তমানে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৬ ওভারে ৮৪ রানে ব্যাট করছে।

২ ওভার আগেই বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফির বলে ব্রাভোর এক দুর্দান্ত ক্যাচ ধরেছেন ইনজুরি কাটিয়ে ওঠা তামিম। মাশরাফির বলে আউট হয়ে ব্যক্তিগত ১৯ রানে ফেরেন ড্রারেন ব্রাভো।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম উইকেট তুলে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। দলের অষ্টম ওভারে ওপেনার কিয়েরন পাওয়েলকে ফেরান তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান তখন ২৯। সাকিবের বলে তুলে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। 

টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করা বাংলাদেশ ওয়ানডে সিরিজ জয় দিয়ে শুরু করতে চায়। এদিকে টস জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটিংয়ে নামছে। 

আজ রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ওয়ানডে শুরু হবে বেলা ১টায়। 

চলতি বছর ১৭টি ওয়ানডে ম্যাচের ১১টিতেই জিতেছে বাংলাদেশ। হার ছয়টিতে। এ বছর আর তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। যার প্রথমটা আজ মাশরাফিরা খেলবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। তিন ম্যাচ সিরিজের শুরুটা জয় দিয়েই চান টাইগার অধিনায়ক। বলেছেন, ‘প্রথম ম্যাচটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ম্যাচটা জিততে হবে।’

ক্যারিবীয়দের সিরিজ হারিয়ে বছরটা ভালো ভালোয় শেষ করতে মরিয়া বাংলাদেশ।

অন্যদিকে  ইনজুরির কারণে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল সবশেষ ওয়ানডে সিরিজে দলে ছিলেন না। তাদের অনুপস্থিতিতেই জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাই করেছেন মাশরাফিরা। সাকিব-তামিম দলে ফেরায় প্রশান্তির বাতাস বইছে বাংলাদেশের ড্রেসিংরুমে।

এর আগে আটটি দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর তিনটিতে জিতেছে বাংলাদেশ। পাঁচটিতে জিতেছে উইন্ডিজ। ২০০৯ সালে ক্যারিবিয়ানে স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশ করেছিল বাংলাদেশ। ২০১২ সালে দেশের মাটিতে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ, মাশরাফি, মেহেদি মিরাজ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: কিয়েরন পাওয়েল, শাই হোপ, ড্রারেভ ব্রাভো, মারলন স্যামুয়েলস, শিরমন হেটমায়ার, রোস্টন চেজ, রোভম্যান পাওয়েল, দেবেন্দ্র বিশু, কেমো পল, কেমার রোচ, ওসানে থমাস। 

পিডিএসও/তাজ