সিপিএলে প্রথম জয় পেল মাহমুদউল্লাহরা

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৮, ১১:২০

অনলাইন ডেস্ক

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের প্রথম ম্যাচে একাদশে ছিলেন না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। প্যাট্রিয়টসও হেরেছিল। বাংলাদেশের অলরাউন্ডার আজ একাদশে ফিরতেই ভাগ্য ফিরেছে প্যাট্রিয়টসের। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে ৪২ রানে হারিয়েছে ক্রিস গেইলের দল। দলের জয়ে অবদান রেখেছেন মাহমুদউল্লাহ। ব্যাট হাতে ১০ বলে করেছেন ১৬ রান। পরে বোলিংয়ে এক ওভারে দিয়েছেন মাত্র ৫ রান।

স্পোর্ট অব স্পেনে টস হেরে ব্যাট করে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ২০৩ রান করেছিল প্যাট্রিয়টস। ব্যাটিংয়ে শুরুটা যদিও ছিল দুঃস্বপ্নের মতো। প্রথম ওভারে ৩ রানের মধ্যেই এভিন লুইস ও টম কুপারের উইকেট হারিয়েছিল প্যাট্রিয়টস। সেখান থেকে দলকে ৬৯ পর্যন্ত টানেন অধিনায়ক গেইল ও ডেভন থমাস। গেইল ৩০ বলে ৩ ছক্কা ও এক চারে ৩৫ রান করে ফিরলে ভাঙে ৬৬ রানের এ জুটি।

থমাস ৩৪ বলে ৯ চার ও এক ছক্কায় করেন ৫৮ রান। শেষ দিকে কার্লোস ব্রাফেটের ১৫ বলে ৫ ছক্কা ও এক চারে ৪১ রানের ক্যামিওতে দুইশ ছাড়ানো পুঁজি পায় প্যাট্রিয়টস। মাহমুদউল্লাহ ছয়ে নেমে সুনীল নারিনের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১০ বলে একটি করে চার ও ছক্কায় করেন ১৬ রান।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় তৃতীয় বলেই নারিনের উইকেট হারায় ত্রিনবাগো। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোয় কখনো জয়ের সম্ভাবনাই জাগাতে পারেনি তারা। ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে করতে পারে ১৬১ রান। ২২ বলে ৪ ছক্কা ও ২ চারে সর্বোচ্চ ৪২ রানে অপরাজিত ছিলেন কুপার। এ ছাড়া ড্যারেন ব্রাভো ৪১ ও কলিন মানরো করেন ৩৫ রান।

ষষ্ঠ ওভারে বোলিংয়ে এসে মাত্র ৫ রান দেয়া মাহমুদউল্লাহকে গেইল পরে কেন আর বোলিংয়ে আনলেন না, সেটা রহস্যই। নেপালের স্পিনার সন্দীপ লামিচানে তার প্রথম ২ ওভারে ৩ রানে ১ উইকেট পেলেও তাকেও শেষ ওভারের আগে আর বল দেননি প্যাট্রিয়টস অধিনায়ক। ব্রাফেট, বেন কাটিং ও জেরেমিহা লুইস নেন ২টি করে উইকেট।

পিডিএসও/হেলাল