জার্মানির বাঁচা-মরার লড়াই

প্রকাশ | ২৭ জুন ২০১৮, ০৮:৩১

অনলাইন ডেস্ক

‘ফুটবল এমন একটি খেলা, যেখানে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত বলের পেছনে ২২ জন দৌড়ায় আর জয় পায় জার্মানি।’ জার্মানির ফুটবল নিয়ে এমন সত্যবচন আর কী হতে পারে! ১৯৮৬ বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুট জয়ী গ্যারি লিনেকারের কথাটায় সত্য হয়েছিল সুইডেনের বিপক্ষে ম্যাচে। হারলেই শিরোপা ধরে রাখার মিশন শেষ হয়ে যেত জার্মানির। কিন্তু শেষ মিনিটের আগ পর্যন্ত যে জার্মানি হারে না তা আরেকবার প্রমাণ দিয়েছে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে টনি ক্রুসের দুর্দান্ত গোলে ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছে জোয়াকিম লোর শিষ্যরা।

প্রথম ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে হার। পরের ম্যাচটা তাই বাঁচা-মরার লড়াই হয়ে দাঁড়ায় জার্মানির সামনে। শেষ পর্যন্ত দুর্দান্ত কামব্যাক করে আত্মবিশ্বাসটা চাঙা করে নিয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। কাজান অ্যারেনায় দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে আজকের ম্যাচটিতেও আরেকবার অগ্নিপরীক্ষা দিতে হবে তাদের। শেষ ষোলোতে যেতে হলে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই কোচ লোর শিষ্যদের।

‘ডি’ গ্রুপে কঠিন এক সমীকরণের সামনে চার দল। ৬ পয়েন্ট নিয়েও অনিশ্চিত মেক্সিকানদের শেষ ষোলোতে যাওয়া। চার দলের যে কেউ উঠে যেতে পারে দ্বিতীয় রাউন্ডে। সমীকরণ বাদ দিয়ে আজ তাই জয় ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই দল চারটির সামনে। তবে এক্ষেত্রে অলৌকিক কিছু ঘটাতে হবে কোরিয়ানদের। জার্মানির বিপক্ষে জয় পেতে হবে বড় ব্যবধানে। অন্য ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে হারতে হবে সুইডেনকে। সমীকরণ যাই বলুক, এমনটা হয়তো স্বপ্নেও ভাবছেন না কোরিয়ান কোচ শিন তায়ি-ইয়ং। কারণ প্রতিপক্ষটা জার্মানি বলেই।

আজকের ম্যাচের আগেই দুঃসংবাদ শুনতে হচ্ছে হচ্ছে কোরিয়ানদের। চোটের কারণে নিয়মিত অধিনায়ক কি সাং-ইউয়েংকে ছাড়া মাঠে নামতে হবে এশিয়ার পরাশক্তিদের। অন্যদিকে জার্মানির দলে ফিরছেন অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার ম্যাট হামেলস। সুইডিশদের বিপক্ষে তার জায়গায় ছিলেন সেবাস্তিয়ান রুডি। কিন্তু নাকে আঘাত পাওয়ায় এই বায়ার্ন মিউনিখ রাইটব্যাককে খেলা দেখতে হবে দর্শক হয়ে। আর লালকার্ডের কারণে থাকছেন না জেরম বোয়েটাং।

বিশ্বকাপ আসরের সবচেয়ে সফল দল জার্মানি। এর আগে ১৮ বার টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে একবারও গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়েনি দলটি। বিশ্বকাপে এশিয়ানদের বিপক্ষে ৫ বারের লড়াইয়ে প্রত্যেকবার জয় পেয়েছে তারা। সেই সঙ্গে আছে গত ১৭ ম্যাচের ১৫টিতে জয়। তাছাড়া প্রতিপক্ষ হিসেবে কোরিয়াও তাদের জন্য চেনামুখ। এর আগে তিনবার সাক্ষাৎ হয়েছে দুই দলের। দুইবার বিশ্বকাপে। প্রত্যেক ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে জার্মানরা।

গত ম্যাচে কোচ লো সাজিয়েছিলেন ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে। এবারও একই কৌশল আঁটছেন তিনি। অন্যদিকে কোরিয়ানরাও মাঠে নামতে পারে একই ফর্মেশনে। জার্মানদের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখতে হলে আজ আরেকবার জ্বলে উঠতে হবে ক্রুসকে। থমাস মুলার ও মার্কো রয়েসদেরও দেখাতে হবে চেনা ফর্ম। অন্যদিকে কোরিয়ানদের মূল ভরসা টটেনহাম ফরওয়ার্ড সন হিয়ুং মিন।

মুখোমুখি

দল - ম্যাচ- জয় - হার
জার্মানি - ৩ - ৩ - ০
দ. কোরিয়া - ৩ - ০ - ৩

পিডিএসও/হেলাল