আর্জেন্টিনার এটা সেরা ম্যাচ হতে পারে

প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৮, ১০:১৯ | আপডেট : ২৬ জুন ২০১৮, ১০:৩১

অনলাইন ডেস্ক

দ্বিতীয় ম্যাচের পরই আর্জেন্টিনার সবকিছু ওলটপালট হয়ে গেছে। ৩-০ গোলে হারার মতো দল নয় আর্জেন্টিনা। মূলত ওই ম্যাচে ডি মারিয়া, দিবালা, রোহো এমন পাঁচ-ছয়জন খেলোয়াড় ছিল না যাদের দিয়ে মানুষ আর্জেন্টিনাকে চেনে। আসলে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হওয়ার আগে একাদশে এমন পরিবর্তন আত্মঘাতী। সে কারণেই কোচের সমালোচনা সবচেয়ে বেশি হয়েছে। এখন টিকে থাকতে হলে আর্জেন্টিনাকে জিততেই হবে।

আগে ৩ পয়েন্ট নিশ্চিত করে তারপর অন্যের দিকে তাকাতে হবে। সমীকরণ মেলাতে হবে। আমি বলব আর্জেন্টিনার সামর্থ্য আছে। তাদের দলে বিশ্বের সেরা সেরা ক্লাবের হয়ে খেলা খেলোয়াড় আছে। তাদের সামর্থ্য আছে যেকোনো পরিস্থিতিতে ম্যাচ জেতানোর। তারা যদি প্রথম ও দ্বিতীয় ম্যাচের মতো খেলে তাহলে নাইজেরিয়ার মতো দলের বিপক্ষে জেতা সম্ভব নয়। আসলে এখন সবাই মেসির দিকে তাকিয়ে আছে। আমি মনে করি শুধু মেসির একার দিকে তাকিয়ে থাকলে হবে না। পুরো টিম হিসেবে খেলতে হবে এবং মেসিকে সাহায্য করতে হবে। যথাযথভাবে মেসিকে সাপোর্ট করতে পারলে জেতার সুযোগ থাকবে।

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে আইসল্যান্ডের জেতা কঠিন। ক্রোয়েশিয়া যদি দ্বিতীয় সারির দলও নামায় তারপরও আইসল্যান্ড জিততে পারবে না। কারণ, এই ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার হয়ে যারা খেলবে তারা তাদের প্রমাণ করতে চাইবে। নিজেদের আলোচনায় নিয়ে আসতে চাইবে। আর ক্রোয়েশিয়া এত নড়বড়ে দল নয় যে তারা আইসল্যান্ডের কাছে হেরে যাবে। আইসল্যান্ড শুধু জিতলেই চলবে না। কমপক্ষে ২-০ গোলে জিততে হবে। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে যা অনেক কঠিন।

মেসি আর মুসার মধ্যে লড়াই হলেও এই দুইজনের তুলনা হয় না। মুসা নাইজেরিয়ার সেরা খেলোয়াড়। সে হয়তো ফর্মে আছে। মেসি কিন্তু শুধু আর্জেন্টিনার নয়, বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। আর সে যেকোনো মুহূর্তেই ফর্মে ফিরতে পারে। এক পেনাল্টি মিস করে মেসি সমালোচনার মধ্যে আছে। অথচ এমন অনেক ম্যাচ মেসি জিতিয়েছে। বিশ্বকাপে আসার আগে কিন্তু সে হ্যাটট্রিকও করেছে। হ্যাঁ, মুসা যেভাবে খেলছে তাতে আর্জেন্টিনাকে সে বিপদে ফেলতে পারে। সে নাইজেরিয়াকে জেতানোর মতো ক্ষমতা রাখে। কিন্তু মেসির সঙ্গে মুসার তুলনা হয় না। আর আজকের ম্যাচে আমি মেসিকেই এগিয়ে রাখব। মেসি আজ কিছু সারপ্রাইজ দিতে পারে। তাদের দলগত পারফরম্যান্স আগের চেয়ে ভালো হতে পারে। ভালো পারফর্ম করেই জিততে পারে। এটা তাদের সেরা ম্যাচ হতে পারে।

নাইজেরিয়া এই ম্যাচে ড্র করলেই পরের রাউন্ডে চলে যাবে। সে কারণে আমি মনে করি তারাও চাপে আছে। তারা যদি ড্রয়ের জন্য খেলে তাহলে বিপদ হতে পারে। কারণ, তাদের দলে বড় ম্যাচের তারকা কম। চাপ নিয়ে খেলার মতো তারকা কম। বড় তারকা বলতে আছেন মুসা ও অধিনায়ক মিকেল। তাদের বড় দলে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। আর তাদের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার রেকর্ড ভালো। আর আর্জেন্টিনার যেহেতু দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে সেহেতু তাদের ভালো খেলতেই হবে। পোল্যান্ডের বিপক্ষে বাঁচা-মরার ম্যাচে কলম্বিয়া কিন্তু ভালো খেলেছে। শেষ পর্যন্ত ৩-০ গোলে জিতেছে। আর্জেন্টিনার সেভাবেই খেলতে হবে। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা না থাকলে কেবল আমি-আপনি কষ্ট পাব না। আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের মতো দল যদি গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ে তাহলে সেটা বিশ্বকাপের জন্য খুবই দুঃখজনক ঘটনা হবে।

পিডিএসও/হেলাল