পানামার বিপক্ষে জয় চায় ইংলিশরা

প্রকাশ | ২৪ জুন ২০১৮, ১৪:২৮

অনলাইন ডেস্ক

শেষ ষোলোয় ওঠা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নিঝনি নভগোরাদ স্টেডিয়ামে নামছে ইংল্যান্ড। আজ রোববার দিনের প্রথম ম্যাচে প্রতিপক্ষ বিশ্বকাপে এবারই অভিষেক ঘটানো পানামা। জয়ী হলেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত হবে ১৯৬৬ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের দল অবশ্যই গ্রুপ সেরা হতেই মাঠে নামবে। অন্যদিকে ভালো খেলে ফুটবলপ্রেমীদের মন জয় করাটাই লক্ষ্য নবাগত দলটির।

প্রথম ম্যাচে তিউনিসিয়াকে হারিয়ে বেশ ভালোই শুরু করেছে ইংলিশরা। যদিও তিউনিশিয়ানরা গোল শোধের পর বেশ চাপে পড়ে গিয়েছিলেন থ্রি লায়ন্সরা। শেষ পর্যন্ত হ্যারি কেনের ইনজুরি টাইমের গোলে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় তুলে নেয় ইউরোপের দেশটি।

আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যায় ৬টার পানামার বিপক্ষে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছে না ইংলিশরা। তারপর গ্রুপের শেষ ম্যাচে খেলতে হবে শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিপক্ষে। থাইয়ের ইনজুরির কারণে খেলছেন না ডেলে আলি। টটেনহ্যাম হটসপারের এই তারকা মিডফিল্ডারের সঙ্গে রহিম স্টার্লিংয়ের প্রথম একাদশে না খেলার গুঞ্জন রয়েছে। 

স্টার্লিং না খেললে তার পরিবর্তে মাঝমাঠ সামলানোর দায়িত্ব থাকবে রুবেন লফটাস-চিকের পায়ে। আর আক্রমণভাগে কেনের সঙ্গে থাকবেন মার্কাস রাশফোর্ড। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের তারকার ফেরাটা ইংলিশ শিবিরকে উজ্জীবিত করছে। ২০ বছর বয়সী এই তরুণ তুর্কির অন্তর্ভুক্তিতে আক্রমণভাগে অধিনায়ক হ্যারি কেনও অনেকটা জায়গা নিয়ে খেলতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন কোচ সাউথগেট। 

পানামা বেলজিয়ামের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারলেও তাদের শক্তিশালী রক্ষণভাগ চিন্তায় রেখেছে ইংল্যান্ডকে। প্রথমার্ধে বেলজিয়াম নবাগত দলটির রক্ষণ ভেদ করতে পারেনি। মধ্য আমেরিকার দেশটির শারীরিক দক্ষতাকেও সমীহ করছে ইংল্যান্ড। 

ব্রিটিশদের দাবি পানামাকে খাটো করে দেখার অবকাশ নেই। তাই দলের ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার বলেছেন, পানামার খেলোয়াড়রা শারীরিক ভাবে বেশ শক্তিশালী। কিন্তু সব গুরুত্বপূর্ণ জায়গাতেই খেলার মতো দক্ষ খেলোয়াড় আমাদের আছে। যেকোনো সময়ই আমরা গোল করতে পারি। বল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে ম্যাচ আমাদের দিকেই থাকবে।

পিডিএসও/হেলাল