জিততেই হবে জার্মানিকে

প্রকাশ : ২৩ জুন ২০১৮, ১১:৩০ | আপডেট : ২৩ জুন ২০১৮, ১১:৩৫

অনলাইন ডেস্ক

'ফুটবল একটি সহজ খেলা। ২২ জন মানুষ ৯০ মিনিট একটা বলের পেছনে দৌড়ায় এবং শেষে জার্মানি জেতে'- ফুটবলে জার্মানদের আধিপত্য বোঝাতে সাবেক ইংলিশ ফুটবলার গ্যারি লিনেকার বলেছিলেন এই কথা। তবে জার্মানি দলের বর্তমান অবস্থা দেখে লিনেকার হয়তো তার বলা কথাকে 'কথার কথা' বলে উড়িয়েও দিতে পারেন।

সর্বশেষ বিশ্বকাপেরই চ্যাম্পিয়ন তারা। এবারের বিশ্বকাপের বাছাইপর্বও তারা পার হয়েছে দারুণ পরাক্রম দেখিয়ে। কিন্তু বাছাইপর্বের পর থেকেই যেন নিজেদের হারিয়ে ফেলেছে জোয়াকিম লোর দল। বিশ্বকাপের আগে থেকেই তাদের ফর্ম ছিল পড়তির দিকে। সেই 'ধারাবাহিকতা' তারা নিয়ে এসেছে রাশিয়া বিশ্বকাপেও। নিজেদের প্রথম ম্যাচেই মেক্সিকোর কাছে হেরেছে ১-০ গোলের ব্যবধানে। সুইডেনের বিপক্ষে আজ রাতের ম্যাচ তাই জার্মানদের জন্য অগ্নিপরীক্ষার অন্য নাম। এই ম্যাচে হারলেই এবারের বিশ্বকাপ থেকে তাদের বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাবে অনেকটাই। 

প্রতিপক্ষ সুইডেন হলেও তাই জার্মানির স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই মোটেও। সবচেয়ে বড় চিন্তার কারণ, দলের ফর্ম। নিজেদের শেষ ছয় ম্যাচের মাত্র একটিতে জিতেছে তারা। বিশ্বকাপের আগে হেরেছে অস্ট্রিয়ার সঙ্গে। সৌদি আরবের বিপক্ষে জয়টাও ছিল বেশ কষ্টার্জিত। মেক্সিকোর বিপক্ষে তো পুরো জার্মান দল নিজেদের ছায়া হয়েই ছিল। একের পর এক আক্রমণ করে গেছে মেক্সিকো, সেইসঙ্গে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে জার্মান রক্ষণভাগের দুর্বলতাগুলো। আক্রমণভাগ নিয়েও চিন্তার কারণ আছে বৈকি। দ্বিতীয়ার্ধে মার্কো রিউস নামার পর তাও আক্রমণে কিছুটা গতি আসে। এর আগে তো আক্রমণভাগকে কোনো দিক দিয়েই 'জার্মানসুলভ' মনে হয়নি। 

জার্মানির এই অফফর্ম সুইডেনকে আত্মবিশ্বাস জোগাবে নিশ্চিতভাবেই। এ ছাড়া নিজেদের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে জয়টাও তাদের আত্মবিশ্বাসের পালে হাওয়া দেবে। অনুপ্রেরণা হিসেবে আছে একটি পরিসংখ্যানও। এর আগে দু'বার বিশ্বকাপে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হয়েছিল সুইডেন- ১৯৫০ সালে ইতালির বিপক্ষে, ১৯৫৮ সালে পশ্চিম জার্মানির বিপক্ষে। দু'বারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে সুইডিশরা। 

তবে পরিসংখ্যান আবার এটাও বলছে যে, এই ম্যাচে পরিস্কার ফেভারিট জার্মানিই। সুইডেনের বিপক্ষে সর্বশেষ ১১ ম্যাচে অপরাজিত জার্মানি। এই ১১ ম্যাচে ৬টিতে জিতেছে জার্মানরা, ড্র করেছে পাঁচটি। বিশ্বকাপে সুইডেনের সঙ্গে চারবারের দেখায় তিনবারই জয় পেয়েছে তারা- ১৯৩৪, ১৯৭৪ ও ২০০৬ বিশ্বকাপে। বাকি একটি ম্যাচে জিতেছিল সুইডেন, ১৯৫৮ সালে নিজেদের দেশে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে। প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক কোনো আসরে জার্মানির বিপক্ষে সেটাই তাদের একমাত্র জয়। বিশ্বকাপে জার্মানির টানা দুই ম্যাচ হারের ঘটনাও বেশ পুরনো। সর্বশেষ ১৯৭৪ সালে ব্রাজিল এবং নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে হেরেছিল জার্মানরা।

তবে পরিসংখ্যান যতই পক্ষে থাক, ম্যাচের ফল নিজেদের পক্ষে আনতে জার্মানি খেলতে হবে নিজেদের সেরা খেলাটাই। বর্তমান চ্যাম্পিয়নয়া কি সেটা পারবে? না পেরে উপায়ও নেই। দল যে দাঁড়িয়ে আছে খাদের কিনারে!

পিডিএসও/রিহাব