বাঁচা-মরার লড়াইয়ে ফ্রান্সের বিপক্ষে লড়ছে পেরু

প্রকাশ : ২১ জুন ২০১৮, ২১:১৫

অনলাইন ডেস্ক

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে বৃহস্পতিবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটা শুরু হয়ে গেল। একাতেরিনবার্গে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে ফ্রান্স ও পেরু। এই ম্যাচ জিতলে টানা দুই জয়ে ফরাসিদের নক আউট পর্বে খেলাটা এক ম্যাচ হাতে রেখেই নিশ্চিত হয়ে যাবে। আর পেরুর বাঁচা-মরার লড়াই। হারলেই বাদ। আগের ম্যাচে হারলেও তারা দারুণ খেলেছিল। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হয়ে যাওয়া এই ম্যাচে তাই উত্তেজনা থাকারই কথা।

গ্রিজমান-পগবা-এমবাপে-গিরুদদের ফ্রান্স তারকানির্ভর। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে যেভাবে তারা ফেভারিট হিসেবে উচ্চারিত হচ্ছিল তেমন খেলা প্রথম ম্যাচে উপহার দিতে পারেনি। হল্যান্ড, ইতালি, রাশিয়াকে ওয়ার্ম আপ ম্যাচে হারিয়েছিল দাপটে। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে দারুণ ধারাবাহিক ছিল। হেরেছিল মোটে এক ম্যাচে। কিন্তু অনেক পিছিয়ে থাকা অস্ট্রেলিয়ার কাছে ইউরোপের দলটিকে শেষ পর্যন্ত ভিএআরের ভাগ্যে জিততে হয়েছিল ২-১ গোলে। রাশিয়ায় অন্যতম ফেভারিট হয়ে যাওয়া দলটির ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনও এই দ্বিতীয় ম্যাচটি।

পেরু বিশ্বকাপে এসেছে ৩৬ বছর পর। লাতিন আমেরিকার দলটির সাথে বিশ্বকাপে ফ্রান্সে দেখা হয়েছিল একবারই। সেই ১৯৮২ সালে। সেবার ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাফ ছেড়েছিল পেরুভিয়ানরা। সময় পেরিয়েছে অনেক। কিন্তু ওই জয়কে এখনো প্রেরণা হিসেবে নিতে পারেন পেরুর খেলোয়াড়রা। উপায়ও নেই তাদের হাতে।

ডেনমার্কের বিপক্ষে তারা দারুণ গতির এবং চমৎকার নৈপুণ্যের খেলা উপহার দিয়েছিল। ক্রিস্টিয়ান কুয়েভা পেনাল্টি শটটাকে নষ্ট করেছিলেন বারের উপর দিয়ে বলটাকে পাঠিয়ে। আক্রমণাত্মক খেলার প্রমাণ রাখলেও শেষ পর্যন্ত সবচেয়ে জরুরি কাজটি সেদিন করতে পারেনি পেরুভিয়ানরা। এই কারণেই এখন বেশি বিপদে তারা। জিততেই হবে। আবার ড্র করলে অংকের মারপ্যাচে একটা সুযোগ থাকবে। অস্ট্রেলিয়া যেভাবে দিনের প্রথম ম্যাচে ডেনমার্কের সাথে ১-১ গোলে ড্র করে নিজেদের টিকিয়ে রেখেছে। প্রথম ম্যাচে যে ফিনিশিংয়ের অভাব ছিল পেরুর খেলায় সেটা এই ম্যাচে দুর হলে ফরাসিদের জন্য সময়টা সহজ যাওয়ার কথা না।

ফিফা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে অবশ্য দুই দলের মধ্যে খুব বেশি ব্যবধান বলার উপায় নেই। কারণ ফ্রান্স ওখানে ৭ নম্বরে। আর ১১ নম্বরে পেরু।

পিডিএসও/রিহাব