মুম্বাইয়ের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

প্রকাশ | ১৭ মে ২০১৮, ০৮:৫৭

অনলাইন ডেস্ক

ঘরের মাঠে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস সবসময়ই অপ্রতিরোধ্য। তার উপরে প্লে-অফের শেষদিকে রোহিত শর্মার দলকে হারানো বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। প্রতিবারই শেষ ধাপে এসে দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা জ্বলে ওঠে। এবারও তাই হলো। ডু অর ডাই ম্যাচে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আসল রূপ দেখাল মাহেলা জয়বর্ধনের শিষ্যরা। বুধবার শ্বাসরোধ করা ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে তিন রানে হারিয়ে প্লে-অফের দৌড়ে ভেসে রইল রোহিতের দল। আর এদিন ম্যাচ হেরে প্লে-অফ কার্যত অনিশ্চিত করে ফেলল রবিচন্দ্রণ অশ্বিনের পাঞ্জাব!

এদিন মুম্বাইয়ের করা ১৮৬ রান তাড়া করতে নেমে পাঞ্জাব শুরুটা ভালোই করে। ৩.৫ ওভারে মাথায় ক্রিস গেইল ১১ বলে ১৮ রান করে ফেরত যান। দ্বিতীয় উইকেটে কেএল রাহুল ও অ্যারন ফিঞ্চ খেলা ধরেন। অস্ট্রেলিয়ান তারকা করেন ৩৫ বলে ৪৬ রান। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রাহুল করেন ৬০ বলে অনবদ্য ৯৪ রান। তবে এই দুজনের পর শেষদিকে আর কেউ ম্যাচ জিতিয়ে আসতে পারেননি। 

রাহুল আউট হন যখন তখন ৯ বলে ২১ রান বাকী ছিল। সেখান থেকে ৩ রানে ম্যাচ হারে প্রীতি জিনতার দল। মাঝের ওভারে রাহুল ও ফিঞ্চকে আটকে দিয়ে খেলা ধরে নেয় মুম্বাই। ওভার প্রতি সবসময়ই ৯ রানের বেশি প্রয়োজন ছিল। ফলে আস্কিং রেট সবসময়ই বেশি ছিল। যেটা পাঞ্জাব পার করতে পারেনি। 

এদিন হেরে ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্টে আটকে রইল অশ্বিন নেতৃত্বাধীন দলটি। মুম্বাই ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্টে পৌঁছাল। নেট রান রেটে মুম্বাই অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। ফলে ছয় থেকে চার নম্বরে উঠে এলো রোহিতের দল। চার থেকে ছয় নম্বরে নেমে গেল গেইল-ফিঞ্চরা। এদিন মুম্বাইয়ের হয়ে জসপ্রীত বুমরাহ ৪ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন। তরুণ এই বোলারের স্পেলই পার্থক্য গড়ে দেয় দুই দলে। এছাড়া মিচেল ম্যাকক্লেনেঘনও ২ টি উইকেট নিয়েছেন। এরআগে কাইরন পোলার্ড মাত্র ২২ বলে অর্ধশতরান করেন। অন্যদিকে পাঞ্জাবের হয়ে অ্যান্ড্রু টাই ১৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। এছাড়া অশ্বিন ৩ ওভারে ১৮ রান দিয়ে ২ উইকেট শিকার করেন।

পিডিএসও/হেলাল