বিপদ বাড়িয়ে দিন শেষ বাংলাদেশের

প্রকাশ : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৬:৩৮ | আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:০৯

অনলাইন ডেস্ক

যে ফাঁদে প্রতিপক্ষ বিপদে পড়েছিল, সেই ফাঁদে বাংলাদেশ আরও বড় বিপদে পড়েছে। শ্রীলঙ্কাকে প্রথম ইনিংসে ২২২ রানে অলআউট করে স্বাগতিকরা ৫৬ রান তুলতে চার উইকেট হারিয়ে প্রথমদিন শেষ করেছে।

চিন্তা বাড়াচ্ছে উইকেটের আচরণ। টার্নিং পিচ বানিয়ে এখন নিজেদেরই ব্যাট করা দায়। তামিম, মুমিনুলের আউটে উইকেটের কোনো ভূমিকা না থাকলেও বিকেলজুড়ে টার্নের পসরা চোখে পড়েছে। পেসার সুরাঙ্গা লাকমাল, স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ এবং দিলরুয়ান পেরেরার বল ছোবল তুলেছে ধারাবাহিকভাবে।

তামিম নেমেই আক্রমণ শুরু করেন। চার হাঁকানোর পর লাকমালকে সোজা ব্যাটে খেলতে গিয়ে তার হাতেই ক্যাচ দেন। আগের ম্যাচের নায়ক মুমিনুলক হক এদিন রান নেয়ার সময় মনোযোগ ঠিক রাখতে পারেননি। ‘থ্র’ থেকে আসা বল তার প্রান্তের উইকেটে যখন লাগে, তখন তিনি অলস ভঙ্গিতে ক্রিজে ব্যাট রাখছিলেন। অনুমান ক্ষমতাকে আরেকটু কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশের বড় ভরসাকে এভাবে ফিরতে হতো না।

মুশফিকুর রহিম একবার রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান। এরপর লাকমালের কমপক্ষে দুটি ভয়ঙ্কর ইনসুইঙ্গারে আউট হতে হতে আবার বাঁচেন। তৃতীয়টি থেকে আর রক্ষা পাননি। আগের দুটির মতো একইভাবে ছাড়তে গিয়ে বোল্ড হন। ২২ বলে এক রান করে ফিরতে হয়ে সাবেক অধিনায়ককে। ইমরুল ফেরেন পেরেরার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে। ৫৫ বলে ১৯ করেন তিনি।

শ্রীলঙ্কা গুটিয়ে যায় রাজ্জাক, তাইজুল এবং মোস্তাফিজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে। চার বছর পর দলে ফেরা রাজ্জাক ৬৩ রানে চার উইকেট নেন। তাইজুলও চারটি। তিনি খরচ করেন ৮৩ রান। মোস্তাফিজ ১৭ রানে দুই উইকেট নিয়ে লঙ্কানদের চা বিরতির পরপরই অলআউট করে দেন। সফরকারীদের হয়ে কুশল মেন্ডিস সর্বোচ্চ ৬৮ ও রোশেন সিলভা ৫৬ রান করেন।

পিডিএসও/হেলাল