পুঁজিবাজারে টানা পতন

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:০০

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবারও পুঁজিবাজারে সূচকের বড় পতন হয়েছে। এদিন দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৫২ পয়েন্ট ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক ১৪৬ পয়েন্ট কমেছে। এ নিয়ে টানা চার কার্যদিবস পুঁজিবাজারে সূচকের পতন হলো। রোব, সোম ও বুধবার সূচকের পতন হয়েছিল।

ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮১০ পয়েন্টে। ডিএসইতে অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১২ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১১১ ও ১৭০৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানির মধ্যে ৫৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, দাম কমেছে ২৭১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৩টি কোম্পানির শেয়ার দর।

এদিন ডিএসইতে ৩২৭ কোটি ৮১ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ৭ কোটি টাকা বেশি। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩২০ কোটি ৯১ লাখ টাকার।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো- ন্যাশনাল টিউবস, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল, ওয়াটা কেমিক্যাল, এটলাস বাংলাদেশ, সিলকো ফার্মা, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, জেএমআই সিরিঞ্জ, স্কয়ার ফার্মা ও বঙ্গজ। 

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১৪৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৬৫৫ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৩৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৩৪টির, কমেছে ১৮৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির দর। সিএসইতে ১২ কোটি ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনের চেয়ে চার কোটি টাকা কম। আগের দিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১৬ কোটি টাকার।

পিডিএসও/রি.মা