ইনস্টাগ্রামে ১৩শ’ পর্ন তারকার অ্যাকাউন্ট ডিলিট

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৪

অনলাইন ডেস্ক

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রাম চলতি বছর শত শত পর্নোস্টার ও যৌনকর্মীর অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছে। অ্যাকাউন্ট ডিলিট ঠেকাতে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষের সঙ্গে গত জুনে বৈঠকও করেছেন তারা। তবে সেই বৈঠক ফলপ্রসূ হয়নি এবং পর্ন তারকাদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট অব্যাহত রয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদেনে এ তথ্য জানায়।

পর্ন তারকা ও যৌনকর্মীদের অভিযোগ, জনপ্রিয় মডেল বা সেলিব্রিটিরা যেভাবে এই মাধ্যমটি ব্যবহার করতে পারেন, তাদের সেভাবে ব্যবহার করতে দেওয়া হচ্ছে না। তারা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।

পর্ন তারকাদের সমিতি অ্যাডাল্ট পারফরমারস অ্যাক্টর্স গিল্ডের প্রেসিডেন্ট এলানা ইভান্স বলছেন, শ্যারন স্টোন এবং অন্য তারকারা যেভাবে তাদের ভেরিফাইড পেজ চালাতে পারেন, আমাদেরও সেভাবে ইনস্টাগ্রাম চালাতে পারার কথা। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, আমাদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, আমাদের প্রতি এই বৈষম্যের কারণ হচ্ছে জীবিকার জন্য আমরা যা করছি সেটা তাদের পছন্দ নয়।

ইভান্সের গ্রুপটি এ রকম প্রায় দেড় হাজার জনেরও বেশি পর্নো তারকার একটি তালিকা তৈরি করেছে, যাদের অ্যাকাউন্ট ইনস্টাগ্রামের মডারেটর ডিলিট করে দিয়েছে। বলা হচ্ছে, নগ্ন চিত্র কিংবা যৌনতার কোনো ছবি না দেওয়া সত্ত্বেও সামাজিক এই যোগাযোগমাধ্যমটির কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড বা রীতিনীতি ভঙ্গ করায় এসব অ্যাকাউন্ট মুছে দেওয়া হয়েছে।

গত সেপ্টেম্বর মাসে পর্নো তারকা জেসিকা জেমিসের মৃত্যুর পর তার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দেওয়ার পর ইভান্স খুব হতাশ হন। তিনি বলেন, ‘যখন দেখলাম জেসিকার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তখন আমার হৃদয় ভেঙে পড়েছিল। ওটাই ছিল শেষ খড়কুটো।

জানা গেছে, ওই অ্যাকাউন্টের অনুসারী ছিল ৯ লাখেরও বেশি। পরে অবশ্য ওই অ্যাকাউন্ট আবার ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

গত বছরের শেষের দিকে অ্যাডাল্ট পারফরমাররা অভিযোগ করেন, কোনো একজন ব্যক্তি বা একদল ব্যক্তি মিলে তাদের অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালাচ্ছে। তাদের পরিষ্কার উদ্দেশ্য ছিল এসব অ্যাকাউন্ট ডিলিট করানো। তাদের দাবি, তাদের বিভিন্ন রকমের বার্তা দিয়ে হয়রানি করা হতো, ভয়-ভীতি দেখানো হতো।

পিডিএসও/তাজ