ইন্টারনেটে ধীরগতি থাকবে ৭ দিন

প্রকাশ : ০৮ মে ২০১৯, ১০:০৪

অনলাইন ডেস্ক

ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে পিছিয়ে যাওয়া প্রথম সাবমেরিন কেবল ‘সি-মি-উই ৪’-এর মেরামতের কাজ আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে। এর ফলে আগামী ৬ থেকে ৭ দিন ইন্টারনেটে ধীরগতির সমস্যায় পড়তে পারেন গ্রাহকরা।

তবে বিকল্প ব্যবস্থা থাকায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের বড় ধরনের ভোগান্তি পোহাতে হবে না বলে আশ্বাস দিয়েছে বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিসিএল)।

কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে ‘সি-মি-উই ৪’-এর তৃতীয় রিপিটার প্রতিস্থাপনের কাজটি এপ্রিল মাসের শেষ দিকে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই সময় বঙ্গোপসাগরে ফণীর অবস্থানের কারণে কাজটি পিছিয়ে যায়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিএসসিসিএল জানায়, কাজটি ‘রি-শিডিউল’ করে বুধবার থেকে শুরু হবে। এর ফলে আগামী ৬ থেকে ৭ দিন কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশনে টার্মিনেটেড সার্কিটগুলো বন্ধ থাকবে। ফলে রক্ষণাবেক্ষণ কাজ চলাকালে ইন্টারনেট গ্রাহকরা সাময়িকভাবে সামান্য ধীরগতির সম্মুখীন হতে পারেন।

ইতোমধ্যে কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে প্রথম রিপিটার প্রতিস্থাপনের কাজ সফলভাবে শেষ হয়েছে বলেও জানায় বিএসসিসিএল। তবে দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল (সি-মি-উই-৫) এবং আইটিসি (ইন্টারন্যাশনাল টেরেস্ট্রিয়াল কেবল) অপারেটরদের সার্কিট চালু থাকায় আন্তর্জাতিক ভয়েস, ডেটা ও ইন্টারনেট সার্ভিসে উল্লেখযোগ্য কোনো সমস্যা হবে না।

বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল ‘সি-মি-উই ৪’-এ যুক্ত হয় ২০০৫ সালে। আর ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ল্যান্ডিং স্টেশনের মাধ্যমে সি-মি-উই ৫-এ যুক্ত হয়।

সাবমেরিন কেবল ছাড়াও বাংলাদেশ এখন ছয়টি বিকল্প মাধ্যমে (আইটিসি) ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের সঙ্গে যুক্ত। সংশ্লিষ্ট টেলিকম সংস্থাকে ইতোমধ্যে বিএসসিসিএলের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে আন্তর্জাতিক সার্কিট চালু রাখার ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছে বিএসসিসিএল।

পিডিএসও/হেলাল