কম খরচে ক্যান্সার শনাক্তকরণ প্রযুক্তি উদ্ভাবন

প্রকাশ : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:০৯ | আপডেট : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৪৩

অনলাইন ডেস্ক

কম খরচে ক্যান্সার শনাক্তকরণ প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে বাংলাদেশ। যে প্রযুক্তির মাধ্যমে একজন রোগীর দেহে কোনো ধরনের যন্ত্রপাতির প্রবেশ ছাড়াই ক্যান্সার আছে কি-না সেটি সনাক্ত করা সম্ভব হবে। এর ফলে প্রচলিত পদ্ধতির বাইরে গিয়ে এখন থেকে রক্ত পরীক্ষা করেই সম্ভাব্য ক্যান্সার শনাক্ত করা যাবে।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এই প্রযুক্তির উদ্ভাবন করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। নন-লিনিয়ার অপটিকস্ গবেষণায় কম খরচে ক্যান্সার সনাক্তকরণ প্রযুক্তি উদ্ভাবনে নেতৃত্ব দেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড.ইয়াসমিন হক।

সংবাদ সম্মেলনের আলোজন করে বাংলদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের উচ্চশিক্ষা মানোন্নয়ন প্রকল্প (হেকেপ)। সংবাদ সস্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন শিক্ষা মন্ত্রী নিজেই।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, মানুষের দেহে লেজার রশ্মি পাঠিয়ে শরীরের ক্যান্সার আছে কি-না সেটি জানা যাবে। তিনি বলেন, বর্তমানে ক্যান্সার শনাক্তে যে প্রচলিত পদ্ধতি রয়েছে সেটি বেশ খরুচে। এখন অল্প খরচে ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব হবে।

সংবাদ সস্মলনে উপস্থিত ছিলেন- বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ জাফর ইকবাল প্রমুখ।

পিডিএসও/রিহাব